kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

কাউন্সিলর তালিকা নিয়ে অসন্তোষ

বিয়ানীবাজার আওয়ামী লীগের সম্মেলন আজ

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি   

১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কাউন্সিলর তালিকা নিয়ে অসন্তোষ

সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার। কাউন্সিলর তালিকায় গরমিল, অনুপ্রবেশকারী ও রাজাকার পরিবারের সদস্য নিয়ে কয়েক দিন ধরে উপজেলাজুড়ে তোলপাড় চলছে।

এদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাসিব মনিয়া ও দপ্তর সম্পাদক দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়ালকে নিয়ে জেলা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন উপজেলার কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা। এ সময় মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, ‘উপজেলার আলবদর সদস্য ছিলেন আব্দুল খালিক ও তাঁর ছেলে আব্দুল হাসিব মনিয়া। তখন আওয়ামী লীগকর্মী জামাল উদ্দিনকে বাড়ির সামনে গাছে বেঁধে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় মনিয়াও জড়িত ছিল।’ এ ছাড়া কুটুচান্দ মেম্বারের ছেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়ালকে শান্তি কমিটির সদস্য আখ্যা দিয়ে তাঁরও অপসারণের দাবি জানানো হয়।

তবে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করে আব্দুল হাসিব মনিয়া রাজাকার নন বলে দাবি করেন বিয়ানীবাজার থানা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের আহ্বায়ক বাবুল আক্তার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার রফিক উদ্দিন, সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আতিক উদ্দিন মেম্বার ও মুক্তিযোদ্ধা সাহাব উদ্দিন।

সূত্র জানায়, কাউন্সিলর বাড়ানোর সিদ্ধান্তে কোন্দল বেড়েছে। লাউতায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় কাউন্সিলর তালিকা নিয়ে অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে। শেওলায় পাল্টাপাল্টি কমিটি থাকায় নতুন করে কাউন্সিলর তালিকা প্রণয়নের দাবি জানিয়েছেন একাংশের সভাপতি ছালিক আহমদ খান। বেশ কিছুদিন ধরে উপজেলা সভাপতি আব্দুল হাছিব মনিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান খানের মধ্যকার দ্বন্দ্ব এখন সবারই জানা।

জানা গেছে, নেতৃত্ব নির্বাচনে ভোটের কথা থাকলেও ‘বিশেষ ক্ষেত্রে’ সিলেকশন প্রক্রিয়ায়ও নেতা মনোনীত করার রেওয়াজ চালু আছে। বিয়ানীবাজারেও দলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করতে ইলেকশন নাকি সিলেকশন হবে, সে প্রশ্ন এখন নেতাকর্মীদের মুখে মুখে।

বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং সিলেট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা। এলাকায় নেতা নির্বাচনে কেন্দ্র ও জেলার নেতারা তাঁর মতামতকেও গুরুত্ব দেবেন বলে মনে করছেন দলীয় নেতাকর্মীরা।

সম্মেলনে সভাপতি পদে আব্দুল হাছিব মনিয়া, আতাউর রহমান খান, নজমুল ইসলাম ও ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ আলী এবং সাধারণ সম্পাদক পদে জাকির হোসেন, হারুনুর রশীদ দীপু, দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাশেম পল্লব, ভাইস চেয়ারম্যান জামাল হোসেন ও সেলিম আহমদ তৎপরতা চালাচ্ছেন।

সম্মেলনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্যসচিব মোস্তাক আহমদ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা