kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

ফুলবাড়িয়া

মহিষের আক্রমণে নিহত ১, আহত ৩০

ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় হিংস্র এক মহিষের আক্রমণে একজন নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে অন্তত ৩০ জন। শেষ পর্যন্ত ৯ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে রাত ১টার দিকে শত শত গ্রামবাসী মহিষটিকে আটক করতে সমর্থ হয়। মহিষের আক্রমণে নিহত শামছুল হক (৭০) জোরবাড়িয়া উত্তরপাড়া গ্রামের ওয়াহেদ আলীর ছেলে।

গত রবিবার দুপুরে ফুলবাড়িয়া সদরের গরুর হাটে বিশাল আকৃতির একটি মহিষ নিয়ে আসেন শফিক, তাজুল ও চানু কসাই। মহিষটি দেখতে ভিড় করে গরু বাজারের উত্সুক জনতা। বিকেল ৪টার দিকে দড়ি ছিঁড়ে মহিষটি মানুষ ও বাজারের গরুর ওপর আক্রমণ করে। এ সময় সবাই ছোটাছুটি শুরু করলে মুহূর্তে গরুর বাজার ফাঁকা হয়ে যায়। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে আশপাশের এলাকায়।

জানা গেছে, মাংস বিক্রির উদ্দেশ্যে তিন দিন আগে এক লাখ ৮০ হাজার টাকায় মহিষটি কেনা হয়। গত রবিবার বিকেলে মহিষটি লোকজনকে দেখাতে পৌর সদরের গরুর হাটে ওঠানো হয়। একপর্যায়ে মহিষটি হিংস্র হয়ে ওঠে। এর আক্রমণে বৃদ্ধ শামছুল হকের মৃত্যু হয়। আহত হয় অন্তত ৩০ জন। এ সময় শত শত মানুষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মহিষটি আটকের চেষ্টা চালায়। রাত ১টার দিকে বালিয়ান ইউনিয়নের বৈদ্যবাড়ি হুগলির বিলে মহিষটি আটকে বেঁধে ফেলা হয়।

ফুলবাড়িয়া থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার বলেন, মহিষের আক্রমণে একজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। আটক মহিষটি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আশরাফুজ্জামানের জিম্মায় রাখা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা