kalerkantho

রবিবার । ১২ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৯ সফর ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

আজ ভয়াল ১২ নভেম্বর

লক্ষ্মীপুর ও চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি   

১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



আজ সেই ভয়াল ১২ নভেম্বর। উপকূলবাসীর বিভীষিকাময় দুঃস্বপ্নের দিন। ১৯৭০ সালের এই দিনে প্রলয়ংকরী ঘূর্ণি ও জলোচ্ছ্বাস ক্ষত-বিক্ষত করে দেয় জনপদ। হারিয়ে যায় লক্ষাধিক প্রাণ। নিখোঁজ হয় সহস্রাধিক মানুষ। এক এক করে ৪৯ বছর পেরিয়ে গেলেও আজো স্বজনহারা মানুষের কান্না থামেনি। সেই দিনও রেডিওতে ১০ নম্বর মহাবিপত্সংকেত দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু উপকূলে ছিল না পর্যাপ্ত রেডিও। যাদের ছিল, তারাও ঘূর্ণিঝড় বিশ্বাস করেনি। ওই দিন সকাল থেকেই ছিল গুঁড়ি-গুঁড়ি বৃষ্টি। সন্ধ্যা থেকে হালকা বাতাস শুরু হয়। গভীর রাতে ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাস আঘাত হানে। যার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ২২২ কিলোমিটার। ঝড় আর পাহাড়সম ঢেউয়ে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় উপকূল। দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় প্রলয়ংকরী ঘূর্ণিঝড় আর জলোচ্ছ্বাস লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী, ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, চট্টগ্রামসহ উপকূলীয় এলাকায় হানা দেয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা