kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নাটোরে ইউপি সদস্যের হামলায় নারী আহত

নাটোর প্রতিনিধি   

১০ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাটোরের নলডাঙ্গার হলুদঘরে আফজাল হোসেন নামের এক ইউপি সদস্য ও তাঁর সন্তানদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আয়না খাতুন নামের এক নারী আহত হয়েছেন। গুরুতর অবস্থায় আয়নাকে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত আয়না শেখপাড়া গ্রামের মৃত আমজাদ হোসেনের মেয়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, আয়না খাতুন তাঁর বোন মুসলের সঙ্গে পারিবারিক জমিজমা নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এ সময় প্রতিবেশী ইউপি সদস্য আফজাল হোসেনের স্ত্রী নাহার বানু তাঁদের আলোচনার মাঝখানে কথা বলতে শুরু করলে আয়না ও তাঁর বোন নিজেদের পারিবারিক বিষয় থেকে তাঁকে বিরত থাকতে বলেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বিষয়টি নাহার বানু তাঁর স্বামী ও সন্তানদের জানান। পরে নাহার বানুর পরিবারের পক্ষ থেকে আয়নাকে নানা ধরনের হুমকি দেওয়া হয়। এ ঘটনায় ভীত হয়ে আয়না শুক্রবার বিকেলে অভিযোগ দিতে নলডাঙ্গা থানায় যান। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে হলুদঘর এলাকায় আফজাল ও তাঁর তিন ছেলে আয়নাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেন। স্থানীয়রা উদ্ধার করে আয়নাকে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। 

এ ব্যাপারে নলডাঙ্গা থানার ওসি (তদন্ত) উজ্জ্বল হোসেন জানান, গতকাল আয়না নামের এক নারী মামলা করতে থানায় আসে কিন্তু মুন্সি না থাকায় মামলা করা যায়নি। পরে যাওয়ার পথে তিনি হামলার শিকার হয়েছেন শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল।

তবে এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি। মামলা হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে কথা বলতে বারবার চেষ্টা করেও ওই ইউপি সদস্যকে পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা