kalerkantho

শনিবার । ২৫ জানুয়ারি ২০২০। ১১ মাঘ ১৪২৬। ২৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

বরিশাল

অনিয়মে বরখাস্ত বিসিসির তিন কর্তা

বরিশাল অফিস   

২২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) তিন কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিসিসির প্রধান নির্বাহীর স্বাক্ষরিত পৃথক চিঠিতে তাঁদের বহিষ্কার করা হয়। একই সঙ্গে করপোরেশনের সাবেক গণসংযোগ কর্মকর্তাকে দ্বিতীয়বারের মতো কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।

বরখাস্ত কর্মকর্তারা হলেন, বাজেট কাম হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মো. মশিউর রহমান, বাজার সুপারিনটেনডেন্ট মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম ও ট্রেড লাইসেন্স সুপারিনটেনডেন্ট মো. আজিজুর রহমান শাহীন। এর আগে তাঁদের নিজ নিজ দপ্তর থেকে সরিয়ে প্রশাসনিক শাখায় যুক্ত করা হয়। প্রথমবার দেওয়া নোটিশের জবাব না দেওয়ায় দ্বিতীয়বারের মতো সাবেক জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আহসান উদ্দিন রোমেলকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। বিসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা বেলায়েত হাসান বাবলু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিসিসি সূত্র জানায়, বাজেট কাম হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মো. মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে নিজ পদে থাকাকালীন অর্থ দপ্তরে প্রভাব খাটিয়ে উচ্চতর স্কেল গ্রহণ, বেতনের সঙ্গে তারতম্যবিহীন অর্থ আয় ও নামে-বেনামে অ্যাকাউন্ট খুলে করপোরেশনের অর্থের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করার অভিযোগ রয়েছে। তা ছাড়া দুর্নীতি দমন কমিশনে জ্ঞাত বহির্ভূত আয়ের অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

অপরদিকে বাজার সুপারিনটেনডেন্ট মুহাম্মদ নুরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে নামে-বেনামে সিটি করপোরেশনের একাধিক স্টল বরাদ্দ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। তা ছাড়া বরাদ্দবিহীন স্টল ভাড়া দিয়ে অর্থ আত্মসাৎ এবং গ্রাহকের কাছ থেকে উেকাচ নেওয়ার মাধ্যমে স্টল বরাদ্দেরও অভিযোগ রয়েছে।

ট্রেড লাইসেন্স সুপারিনটেনডেন্ট মো. আজিজুর রহমানের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে নামে-বেনামে সিটি করপোরেশনের একাধিক স্টল বরাদ্দ দেওয়াসহ সহায়ক কর্মচারীকে দিয়ে অবৈধ কাজ করানো এমনকি ওই কাজে তাঁকে বাধ্য করার অভিযোগ রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা