kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৭ রবিউস সানি ১৪৪১     

ধামরাইয়ে ফের শিশু ধর্ষণ

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকার ধামরাইয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে আরো এক শিশু। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষক গোলাম মোস্তফাকে (৫০) আটক করা হয়েছে। জানা গেছে, পোশাক শ্রমিক মা-বাবা শিশুটিকে বাসায় রেখে কর্মস্থলে যান। এ সুযোগে আরেক নারী পোশাক শ্রমিকের স্বামী গোলাম মোস্তফা (৫০) ওই শিশুকে চকোলেট খাওয়ানোর কথা বলে নিজের ভাড়া বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। সোমবার সকালে পৌরসভার ইসলামপুর মহল্লায় মিন্টু মিয়ার বাসায় এ ঘটনা ঘটে। আটক ধর্ষক গোলাম মোস্তফা নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার আশুজিয়া গ্রামের জবান হোসেনের ছেলে।

ধামরাই থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা জানান, পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে মোস্তফাকে আদালতে পাঠালে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়। অন্যদিকে গত বৃহস্পতিবার চার শিশু ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার আফসার উদ্দিনের বিরুদ্ধে চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার থেকে জানা গেছে, সোমবার সকালে গোলাম মোস্তফা এক শিশুকে চকোলেট খাওয়ানোর প্রলোভন দিয়ে তাঁর কক্ষে নিয়ে যান। এরপর তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের কথা কাউকে বললে শিশুটিকে হত্যা করা হবে—এমন হুমকি দিয়ে তাকে বাসায় পাঠিয়ে দেন অভিযুক্ত ধর্ষক। রাতের বেলায় মা-বাবা কর্মস্থল থেকে বাসায় এলে তাঁদের কাছে বিস্তারিত ঘটনা বলে দেয় শিশুটি। পরে ঘটনাটি পুলিশকে জানালে পুলিশ গোলাম মোস্তফাকে আটক করে। তাঁর বিরুদ্ধে রাতেই মামলা করেন শিশুটির বাবা।

ওসি দীপক চন্দ্র জানান, শিশুটিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার পৌরসভার আমবাগান মহল্লার স্থানীয় আফসার উদ্দিন (৫৫) চকোলেট খাওয়ানোর কথা বলে তাঁর নিজস্ব তিনতলা ভবনের চিলেকোঠায় নিয়ে হাত-পা বেঁধে পর্যায়ক্রমে চার শিশুকে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় গত সোমবার ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আফসার উদ্দিনকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রিমান্ড শুনানি শেষে আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা