kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ধামইরহাট

আত্রাইয়ে সেতুর অভাবে দুর্ভোগে ৫০ হাজার মানুষ

ধামইরহাট-পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নওগাঁর ধামইরহাটের আলমপুর ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) আত্রাই নদীর ওপর সেতু না থাকায় দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে অন্তত ৫০ হাজার মানুষ। দীর্ঘদিন ধরেই নদী পারাপারে, বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে নৌকাই তাদের একমাত্র ভরসা।

জানা যায়, নদীর এপারে রাঙ্গামাটি বাজার, আর ওপারে তালতলী। বাজারটির পাশেই তালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি উচ্চ বিদ্যালয়, আলমপুর ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয় অবস্থিত। ভগবানপুর, গোপীরামপুর, দেবীপুর, ছিলিমপুর, আলমপুর, খেলনা, বরইল, চকহাড়া, খলনা, উদয়শ্রী, বৃষ্টপুর, ডাঙ্গাপাড়াহাট, কুটরইলহাট, চকমূলী, কৃষ্ণবল্লভ, মশলইসহ অন্তত ৪০টি এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ প্রতিদিন এ নদী পার হয়। সড়কপথে ধামইরহাট, পত্নীতলা ও নওগাঁ সদরে যাওয়ার ক্ষেত্রেও এ নদী পার হতে হয় তাদের। কিন্তু সেতুর অভাবে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে তারা। এ ছাড়া এসব এলাকার উৎপাদিত আখ জয়পুরহাট সুগার মিলে নিতে ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার রাস্তা বেশি ঘুরতে হয়। এতে সময় ও টাকা—দুটিই অপচয় হয়।

তালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল হোসেন বলেন, ‘যোগাযোগ সমস্যার কারণে এ এলাকার শিক্ষার্থীরা অনেক পিছিয়ে আছে। বর্ষা মৌসুমে নৌকায় করে পারাপার ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় অনেকেই লেখাপড়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। অন্যদিকে অনেক সময় অপচয় হয়। সেতু নির্মিত হলে এলাকাবাসী এ দুর্ভোগ থেকে রক্ষা পেতে পারে।’

এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী মো. আলী হোসেন বলেন, ‘রাঙ্গামাটি বাজার-তালতলী এলাকায় আত্রাই নদীতে সেতু নির্মাণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন পাঠানো হয়েছে। আশা করছি, দ্রুত সেতু নির্মাণ করা সম্ভব হবে।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা