kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

ক্লিনিক মালিকের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নওগাঁর সাপাহারে ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের (বর্তমানে ফরিদা ক্লিনিক) মালিক ফরিদা বেগমের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। তিনি এক ব্যক্তির কাছ থেকে প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দেওয়ার শর্তে তিন লাখ টাকা নেওয়ার পর এখন তা আত্মসাতের চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কয়েক বছর আগে সদরের সরফতুল্লাহ ফাজিল মাদরাসার সামনে বাসা ভাড়া নিয়ে মোহনা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার স্থাপন করেন স্থানীয় আবু আনছারের স্ত্রী ফরিদা বেগম। গত বছরের অক্টোবরে শেয়ার দেওয়ার শর্তে একই উপজেলার গোডাউনপাড়ার মৃত রহিমুুদ্দীনের ছেলে তরিকুল ইসলামের সঙ্গে একটি চুক্তি সম্পাদন করেন। সে অনুযায়ী সহায়-সম্বল বিক্রি করে তরিকুল তিন লাখ টাকা দেন। সেই সঙ্গে তিনি ওই ক্লিনিকে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করতে থাকেন।

প্রতিষ্ঠানের আয়-ব্যয় নিয়ে একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে ফরিদা বেগম প্রতিষ্ঠান থেকে তরিকুলকে বের করে দেন। পরবর্তী সময়ে ক্লিনিকের নাম পরিবর্তন করে নিজের নামে (ফরিদা ক্লিনিক) কার্যক্রম চালাতে শুরু করেন।

এদিকে শেয়ারের টাকা ফেরত চাইলে ফরিদা বেগম তাঁকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করার পাশাপাশি হুমকি দেন। এ ঘটনার পর তরিকুল সম্প্রতি ওই ক্লিনিকে তালা লাগিয়ে দেন। ফরিদা বেগমের মোবাইলে ফোন দিলে তিনি ক্লিনিকে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে বলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা