kalerkantho

সোমবার । ২৯ আষাঢ় ১৪২৭। ১৩ জুলাই ২০২০। ২১ জিলকদ ১৪৪১

দামুড়হুদা

প্রতিমা বিসর্জন শেষে বাড়ি ফেরার পথে ছুরিকাঘাতে যুবক আহত

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গায় দুর্গাপূজার প্রতিমা বিসর্জন দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সনজয় বিশ্বাস (২০) নামের এক যুবক ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন। আহত সনজয় বিশ্বাস কার্পাসডাঙ্গা আদিবাসী পাড়ার নির্মল বিশ্বাসের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, গত মঙ্গলবার বিকেলে প্রতিমা বিসর্জনের আগে মণ্ডপের সামনে রং খেলার সময় সনজয় একই পাড়ার ছোটমনির মেয়ের মুখে রং লাগিয়ে দেন ও তাকে ধাক্কা মারলে মেয়েটির মা তাঁকে নিষেধ করেন। এ সময় সনজয় ক্ষিপ্ত হয়ে মেয়েটির মাকে লাঞ্ছিত করেন। পরে স্থানীয় ভৈরব নদীতে প্রতিমা বিসর্জন দিয়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে একইভাবে আবারও ওই মেয়ের মুখে রং লেপে দেন। এতে ছোটমনির ছেলে পরান (১৯) ক্ষিপ্ত হয়ে সনজয়ের পেটে ছুরিকাঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। তাঁকে উদ্ধার করে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। এখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। এবং অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল ওই রাতেই রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে।

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক এহসানুল হক তন্ময় বলেন, ‘সনজয়ের আঘাত গুরুতর। তাঁকে অপারেশন করা প্রয়োজন। এমনকি তাঁকে আইসিইউতে রাখতে হতে পারে, এ কারণে তাঁকে রাজশাহী রেফার্ড করা হয়েছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা