kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

মাদারগঞ্জ

১৩১ বস্তা সরকারি চাল জব্দ

জামালপুর প্রতিনিধি   

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১৩১ বস্তা সরকারি চাল জব্দ

জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার গুনারিতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ডিলার মো. আমিনুল ইসলাম জুয়েলের বিরুদ্ধে মাদারগঞ্জ থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়ার সময় গত মঙ্গলবার রাতে তাঁর গুদাম  থেকে ১৩১ বস্তা চাল জব্দ করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মাদারগঞ্জ উপজেলার গুনারিতলা ইউনিয়নের সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরের চাল অতিদরিদ্রদের মাঝে বিক্রি না করে কালোবাজারে বিক্রির প্রক্রিয়া করছিলেন সংশ্লিষ্ট ডিলার ও আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম জুয়েল। ওই ডিলার ও তাঁর শ্রমিকরা গত মঙ্গলবার সারা দিন ইউনিয়নের স্থানীয় বালাভরাট মোড়ে গুদামের ভেতরে ৩০ কেজি ওজনের বস্তা খুলে সেই চাল প্রতিটি ৫০ কেজি ওজনের বস্তায় ভরেন। এরপর ওই দিন সন্ধ্যার দিকে কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে চালের বস্তা গুদাম থেকে বের করা হচ্ছে, এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সন্ধ্যা ৭টার দিকে মাদারগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আমিনুল ইসলাম পুলিশ ফোর্স নিয়ে ওই গুদামে হানা দেন। এ সময় গুদামের বাইরে ট্রাকে উঠানো ৫০ কেজি ওজনের ১২১ বস্তা এবং গুদামের ভেতরে ৩০ কেজি ওজনের আরো ১০ বস্তা চাল জব্দ করে। যেখানে মোট ছয় হাজার ৩৫০ কেজি চাল ছিল। তবে এ অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে ডিলার আমিনুল ইসলাম জুয়েল ও তাঁর গুদামের শ্রমিকরা পালিয়ে যান। ফলে সেখান থেকে কাউকে আটক করা যায়নি।

এ ঘটনায় গুনারিতলা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট ডিলার ও আওয়ামী লীগ নেতা মো. আমিনুল ইসলাম জুয়েলকে আসামি করে গত মঙ্গলবার রাতে মাদারগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা করেন। মাদারগঞ্জ মডেল থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা