kalerkantho

রবিবার । ২০ অক্টোবর ২০১৯। ৪ কাতির্ক ১৪২৬। ২০ সফর ১৪৪১                

নাটুয়াপাড়া আশ্রয়ণ প্রকল্প

বৃষ্টিতে পানিবন্দি বাসিন্দারা

মহাদেবপুর-বদলগাছী (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৃষ্টিতে পানিবন্দি বাসিন্দারা

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার নাটুয়াপাড়া আশ্রয়ণ প্রকল্প এলাকা বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

এমনিতেই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশসহ বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত নওগাঁর মহাদেবপুরের খাজুর ইউনিয়নের নাটুয়াপাড়া (বড়বিলা) আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দারা। এর ওপর গত এক সপ্তাহ ধরে পানিবন্দি হয়ে আছে তারা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, প্রকল্পের বেশির ভাগ ঘরই বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এ প্রকল্পে ২২০টি ঘর আছে। এখানে এখন পাঁচ শতাধিক মানুষ (১৬০টি পরিবারে) বসবাস করছে। গত সপ্তাহে মাত্র দুই দিনের (সোম ও মঙ্গলবার) বৃষ্টিতে প্রকল্পটি পানিতে ডুবে গেছে। এ ছাড়া তিনটি পুকুর প্লাবিত হয়েছে। কয়েক দিন ধরে পানিবন্দি থাকলেও প্রকল্পের বাসিন্দারা এখনো সরকারি কোনো সহযোগিতা পায়নি।

প্রকল্পের বাসিন্দা রওশন বেওয়া, মকলেছার, ইমান সরদার ও গহের আলী অভিযোগ করেন, ‘একটু বৃষ্টি হলেই টিনের ফুটো দিয়ে ঘরে পানি পড়ে। তখন বিছানা ভিজে যায়। সরকার ঘরগুলো ঠিক করে দিচ্ছে না।’

প্রকল্পের সাধারণ সম্পাদক বাবলু আলী বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা একটু নজর দিলে আশ্রয়ণবাসীর কষ্ট থাকবে না।’

খাজুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য আব্দুল করিম বলেন, বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যানসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. বেলাল উদ্দিন জানান, ‘অল্প বৃষ্টিতেই প্রকল্প ডুবে যায়। সরকারি কোনো সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে না বাসিন্দারা। আমি বর্তমান এমপিসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি যাতে তারা কিছু ত্রাণ সহায়তা পায়।’

তবে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মুলতান হোসেন বলেন, ‘আমাদের কিছুই করার নাই। সরকার একবার ঘর করে দিয়েছে।

বাকিটা এখন নিজেদের (বাসিন্দা) করতে হবে। সরকার সংস্কার করে দেবে না।’

অন্যদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মিজানুর রহমান বলেন, ‘(প্রকল্প থেকে) পানি নামছে। বন্যার কারণে জেলা থেকে যে বরাদ্দ দিয়েছিল তা আর নেই। বিষয়টি আমরা জেলা প্রশাসনকেও জানিয়েছি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা