kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ছাতকে ৯ কার্ডধারীকে দেওয়া হচ্ছে না ভাতা

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছাতকে ৯ কার্ডধারীকে দেওয়া হচ্ছে না ভাতা

সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের প্রবীণরা ভাতা না পেয়ে প্রতিবাদে কার্ড হাতে দাঁড়িয়ে আছেন। ছবিটি গত বৃহস্পতিবার তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

সুনামগঞ্জের ছাতকে এক ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে সরকারি কার্ডধারী ৯ জনের বয়স্ক ভাতা আটকে রেখেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। নির্ধারিত সময়ে এসব বয়স্ক মানুষ ভাতা নিতে গিয়ে খালি হাতে ফিরে এসেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের মঈনপুর কৃষি ব্যাংকের সামনে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দোলারবাজার ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বয়োবৃদ্ধ ১১ জনের কার্ড সরকারিভাবে ইস্যু করা হয়। তাঁদের বয়স্ক ভাতার কার্ডের প্রতিটি ছবিতে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বারের সিল-স্বাক্ষরও রয়েছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে তাঁদের কার্ড ইস্যু করা হলেও এখন পর্যন্ত ভাতার স্বাদ নিতে পারেননি তাঁরা। ফলে বিগত ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহায় ভাতাবঞ্চিত হয়ে ফিরে যেতে হয়েছে তাঁদের।

গত বৃহস্পতিবার ছিল ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ভাতাভোগীদের ভাতা দেওয়ার দিন। ওই দিন কৃষি ব্যাংক মঈনপুর শাখা থেকে উপকারভোগীদের ভাতা দেওয়া হচ্ছিল। ভাতাপ্রাপ্তির প্রত্যাশায় বঞ্চিত ১১ জন আবারও ভাতা নিতে এসে তাঁদের ভাতার কার্ড ব্যাংকে জমা দেন। কিন্তু তাঁদের ভাতা দেওয়া হয়নি। একই সঙ্গে ইস্যু করা কার্ডধারীদের মধ্যে সুমিনা বেগম ও লাল বিবিকে ভাতা দিলেও বাকি ৯ জন খালি হাতে ফিরে গেছেন। তাঁরা হলেন জহুরা বিবি, ইন্তাজ আলী, কমরুননেছা, এছন বিবি, সবজান বিবি, জয়ফুল বিবি, আহমদ আলী, নেকজান বিবি ও ফুলতেরা বিবি।

ভাতা না পেয়ে বঞ্চিতরা কার্ড হাতে রাস্তায় দাঁড়িয়ে মৌন প্রতিবাদ করেন। এ সময় তাঁরা জানান, চেয়ারম্যান সায়েস্থা মিয়া অনৈতিক চাহিদা না পাওয়ায় তাঁদের ভাতা অন্যায়ভাবে আটকে রেখেছেন। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কৃপাদৃষ্টি কামনা করেন তাঁরা।

কৃষি ব্যাংক মঈনপুর শাখার ম্যানেজার ক্ষিতিশ রঞ্জন তালুকদার জানান, তাঁদের কার্ডে কোনো রকম জটিলতা নেই। তাঁদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকাও বরাদ্দ রয়েছে। শুধু ইউপি চেয়ারম্যান সায়েস্থা মিয়ার নির্দেশে তাঁদের ভাতা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান সায়েস্থা মিয়া বলেন, এসব কার্ড তাঁর মাধ্যমে তালিকাভুক্ত হয়নি বলে ভাতা প্রদানের জন্য নিষেধ করেছেন তিনি। তবে তাঁরা যদি ভাতার কার্ড তাঁর কাছে জমা দেন, তাহলে ভাতা পাওয়ার ব্যবস্থা করে দেবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা