kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

গলাচিপায় মাদক কারবারি ও সেবনকারীর আত্মসমর্পণ

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গলাচিপা থানা পুলিশের উদ্যোগে ছয় মাদক কারবারি ও সেবনকারী আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করেছে। আত্মসমর্পণকারীদের পুনর্বাসনের জন্য গলাচিপা পৌরসভা থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পটুয়াখালী পুলিশ সুপার মো. মাঈনুল হাসান। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় পৌর এলাকার ১ নম্বর ওয়ার্ডের শেখ রাসেল স্টেডিয়াম মাঠে আত্মসমর্পণ ও পুনর্বাসন উপলক্ষে আয়োজিত সভায় বিট পুলিশিং কার্যালয় উদ্বোধন করা হয়। গলাচিপা থানার ওসি আখতার মোর্শেদের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সন্তোষ কুমার দে, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. নিজাম উদ্দিন মোল্লা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ওয়ানা মার্জিয়া নিতু, পৌর প্যানেল মেয়র আঞ্জুমান আরা করুনা, পৌর কাউন্সিলর সুশীল চন্দ্র বিশ্বাস, আঁখি হাওলাদার প্রমুখ। আত্মসর্মপণকারী মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীরা হলেন, গলাচিপা পৌরসভার শান্তিবাগ এলাকার কদম আলীর ছেলে আলী হোসেন (৫০), শ্যামলীবাগ এলাকার লিটনের স্ত্রী লিজা বেগম (৩৮), কর্মকারপট্টির রাধেশ্যাম বণিকের ছেলে স্বপন বণিক (৪৮), কলাবাগানের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে কাইয়ুম (৩০), ডাকুয়া ফুলখালীর জামাল মিয়ার ছেলে সোহাগ (২৮) ও আমখোলা ইউনিয়নের ছৈলাবুনিয়া গ্রামের শাহজাহান হাওলাদারের ছেলে শাহিন হাওলাদার (৩০) পটুয়াখালী পুলিশ সুপার মো. মঈনুল হাসানের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। আত্মসমর্পণকারীদের পুনর্বাসনের জন্য প্রত্যেককে নগদ অর্থ এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ের জন্য বিভিন্ন সামগ্রী দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা