kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

আহতকে উদ্ধার করার সময় পুলিশের ওপর হামলা

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে পূর্বশত্রুতার জেরে এক তরুণকে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। আহত ওই তরুণকে উদ্ধার করতে গেলে পুলিশের ওপরও হামলা চালায় তারা। এ সময় তিন এসআই, দুই এএসআইসহ ১০ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরে পুলিশ সাত রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে উপজেলার চরআলগী ইউনিয়নের বোরাখালী চর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বোরাখালী চর গ্রামে ২০১৮ সালে একই পরিবারের দুই পক্ষের মধ্যে জমির বিরোধ নিয়ে আবুল কালাম নামের একজন নিহত হন। ওই ঘটনায় গফরগাঁও থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়। মামলাটি বর্তমানে ডিবি পুলিশ তদন্ত করছে। কিন্তু মামলা হওয়ার পর থেকে বিবাদীপক্ষ বাদীপক্ষকে মামলা প্রত্যাহারের জন্য হুমকি ও চাপ দিচ্ছিল। মামলা প্রত্যাহার না করায় গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বিবাদীপক্ষের লোকজন নিহত আবুল কালামের ছেলে জীবনকে (১৮) বাড়ি থেকে তুলে একটি বাগানে নিয়ে রামদা দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে রাত ১০টার দিকে গফরগাঁও থানার পুলিশ জীবনকে উদ্ধার করতে যায়। এ সময় বিবাদীপক্ষের ২৫-৩০ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে এসআই খাইরুল ইসলাম, এসআই জাকির হোসেন, এসআই আহসান হাবিব, এএসআই সুখময় দত্ত, এএসআই তাহের, কনস্টেবল রউফসহ ১০ জন আহত হন। পরে পুলিশ সাত রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় পুলিশের ওপর হামলায় জড়িত আবু বকর সিদ্দিক, তার স্ত্রী খোদেজা বেগম, ছেলে আল আমিন, কাউছার, আবু সাঈদকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয় এবং ঘটনাস্থল থেকে হামলায় ব্যবহৃত রামদা, ছেনদা, হাঁসুয়া, বল্লম ও স্টিলের পাত জব্দ করা হয়। আহত জীবনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা