kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশির লাশ ফেরত

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা নিমতলা সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে নিহত নাজিম উদ্দীন (৩৫) নামের এক মাদক কারবারির লাশ ভারতীয় হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে দুই দিন পর ফেরত দিয়েছে

বিএসএফ। গত শুক্রবার রাত

৯টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা চেকপোস্ট সীমান্তের ৭৬

নম্বর মেইন পিলারের কাছে দুই দেশের সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে

পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাঁর লাশ বিজিবির কাছে ফেরত দেয় বিএসএফ।

পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, ধোপাখালী বিজিবি ক্যাম্পের কম্পানি কমান্ডার রেজাউল করিম, জীবননগর থানার ওসি (তদন্ত) ফেরদৌস ওয়াহিদসহ ১০ জন এবং ভারতের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন গেদে বিএসএফ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসি সৌরভ সামন্তসহ ১০ জন।

জানা যায়, গত বুধবার রাতে মাদক কারবারি নাজিম উদ্দীনসহ চার-পাঁচজন নিমতলা সীমান্তের ৭৪ নম্বর মেইন পিলারের কাছ দিয়ে গরু আনার উদ্দেশ্যে ভারতের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে। এ সময় ভারতের গেদে বাগানপাড়া ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। এতে নাজিম উদ্দীন ঘটনাস্থলেই নিহত হন, অন্যরা পালিয়ে যায়। রাতেই বিএসএফ তাঁর লাশ কৃষ্ণনগর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে এবং কৃষ্ণনগর হাসপাতালে লাশের ময়নতদন্ত সম্পন্ন হয়।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নাজিম উদ্দীনের লাশ ফেরত চেয়ে এবং ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিজিবি ভারতীয় বিএসএফের কাছে চিঠি দেয়। এ ঘটনার পর গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে সীমান্তে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাঁর লাশ বিজিবির কাছে ফেরত দেয় বিএসএফ।

এ বিষয়ে ধোপাখালী বিজিবি ক্যাম্পের কম্পানি কমান্ডার রেজাউল করিম বলেন, ‘পুলিশের মাধ্যমে তাঁর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা