kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

স্কুলের গাছ বিক্রিতে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি    

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্কুলের গাছ বিক্রিতে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ভাওড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিশাল আকৃতির কড়ই গাছ বিক্রির পর কেটে ফেলা হয়েছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা পর্ষদের সদস্যদের বিরুদ্ধে ভাওড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চারটি কড়ইগাছ বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। বানেজ নামের স্থানীয় এক কাঠ ব্যবসায়ী ওই গাছগুলো কিনেছেন বলে জানা গেছে। এদিকে সরকারি বিধি না মেনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই অল্প দামে গোপনে গাছগুলো বিক্রি করায় এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। জানা যায়, সম্প্রতি ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুপ্রিয়া সাহা ও পরিচালনা পর্ষদের সদস্যরা গোপনে স্কুলঘেঁষা বড় চারটি কড়ইগাছ বিক্রির পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, উপজেলা প্রশাসন ও বন বিভাগের কোনো অনুমতি না নিয়েই তাঁরা শুধু ভাওড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেনকে জানিয়ে গোপনে গাছগুলো অল্প দামে বিক্রি করে দেন। ওই কাঠ ব্যবসায়ী এক সপ্তাহ আগে গাছগুলো কাটতে এলে বিষয়টি স্থানীয় লোকজনের নজরে আসে। বক্তব্য নিতে ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রওশনারা বেগম ও প্রধান শিক্ষক সুপ্রিয়ার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাঁদের পাওয়া যায়নি। তবে পরিচালনা পর্ষদের সদস্য শফিকুল ইসলাম ফনি জানান, গাছ বিক্রির কিছুই জানেন না তিনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আব্দুল মালেক বলেন, ‘খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা