kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

হবিগঞ্জে বিরল স্ট্যাপেলিয়া

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হবিগঞ্জে বিরল স্ট্যাপেলিয়া

হবিগঞ্জ শহরের মাস্টার কোয়ার্টার এলাকায় অ্যাডভোকেট শামীম পারভীনের বাসায় ফুটেছে ব্যতিক্রমধর্মী পাথুরে ক্যাকটাস স্ট্যাপেলিয়া ফুল। ব্যতিক্রম ও সুন্দর এই ফুল দেখতে ভিড় জমছে তাঁর বাসায়। দেড় বছরের সাধনার পর এই ফুল ফোটায় আনন্দিত শামীম পারভীন। আগত সবাইকে উৎসাহ নিয়ে দেখাচ্ছেন এই ফুল।

শামীম পারভীন জানান, গত মঙ্গলবার রাতে তাঁর বাসার একটি টবে এই ফুল ফুটেছে, যা দেখতে খুবই সুন্দর। তিনি দেড় বছর আগে ঢাকার শামীম হাশমীর বাসা থেকে এই ফুলের চারা সংগ্রহ করেছিলেন। তিনি বলেন, “ফেসবুকে একটি গ্রুপ আছে ‘এসো বাগান করি’। এই গ্রুপের মাধ্যমে আমরা একজনের কাছ থেকে আরেকজন বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা সংগ্রহ করি এবং চাষের কৌশলও বিনিময় করি। আমার কাছে এই ফুলের পাঁচটি জাত আছে।” তিনি আরো বলেন, ‘প্রতিদিনের কাজের ফাঁকে আমি বাগানের ফুলগাছগুলোর পরিচর্যা করি। কেউ চাইলে এ ব্যাপারে সহযোগিতা করি।’ ফেসবুকে নতুন এই ফুলের খবর ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই দেখতে আসছে।

হবিগঞ্জ সরকারি বৃন্দাবন কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সুভাষ চন্দ দেব বলেন, ‘এটি অর্কিডেসি পরিবারের উদ্ভিদ নয়। উদ্ভিদ কাঁটাবিহীন, রসালো সবুজ কাণ্ড ২০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত হতে পারে। এটি মূলত আফ্রিকান উদ্ভিদ, তবে গ্রীষ্মকালীয় অঞ্চলে খাপ খেয়েছে ভালোই। এটিকে জুলু জায়ান্ট বা ক্যারিওন প্ল্যান্টও বলা হয়ে থাকে। স্ট্যাপেলিয়ার প্রায় সকল প্রজাতির ফুলের গন্ধ পচা মাংসের মতো। পতঙ্গ আকৃষ্ট করার জন্যই এই ব্যবস্থা। তবে মানুষের জন্য সুখকর নয়। গন্ধে অনেকের বমি আসতে পারে বা ক্ষুধামান্দ্য দেখা দিতে পারে। স্ট্যাপেলিয়ার ফুল বেশ বর্ণিল, অমসৃণ, রোমযুক্ত তারকাকৃতির হয়। ফুলের ব্যাস ২৫ সেন্টিমিটারের বেশিও হতে পারে। গন্ধ যাই হোক, বর্ণিল ফুলের জন্য বাগানে স্থান করে নিয়েছে স্ট্যাপেলিয়া।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা