kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

নন্দীগ্রামে এক মাসে ৪০০ গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নন্দীগ্রামে এক মাসে ৪০০ গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা

বগুড়ার নন্দীগ্রামে হাইওয়ে পুলিশ ১১৫টি যানবাহন জব্দ করে ফাঁড়িতে রেখেছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

বগুড়ার নন্দীগ্রামে বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে ফিটনেস ও লাইন্সেসবিহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে প্রতিদিনই অভিযান চালাচ্ছে হাইওয়ে পুলিশ। গত এক মাসে মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে ৪০০ যানবাহনের বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে তারা। এর মধ্যে বাস, ট্রাক, পিকআপ ভ্যান, সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও ইজি বাইকসহ অন্য যানবাহন আছে।

একই সঙ্গে ১১৫টি যানবাহন জব্দ করে কুন্দারহাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে রেখেছে। জানা যায়, মামলা দেওয়ার পাশাপাশি সচেতনতা তৈরিতে কাজ করছে পুলিশ। পথচারী ও যানবাহনের চালকদের উদ্দেশে সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হচ্ছে। তবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, মোটরসাইকেলচালকের হেলমেট থাকলেও আরোহীর হেলমেট নেই।

এসব ক্ষেত্রে আরোহীর জন্য হেলমেট রাখতে সতর্ক করার পাশাপাশি মামলা দিচ্ছে পুলিশ। চালক রাজু আহম্মেদ বলেন, ‘নন্দীগ্রাম থেকে বগুড়ার শাকপালা পর্যন্ত মহাসড়কে সিএনজিচালিত অটোরিকশা চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। ধরা খেলেই দেওয়া হচ্ছে মামলা, আটকানো হচ্ছে সিএনজি। আঞ্চলিক সড়কে ভাড়া কম হওয়ায় আমরা বিপাকে পড়েছি।’ কুন্দারহাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ কাজল কুমার নন্দী বলেন, ‘গত এক মাসে ৪০০ যানবাহনের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে ১১৫টি যানবাহন।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা