kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রাজশাহী

বন্ধ করে দেওয়া ঘাটে বালু উত্তোলনের প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজশাহীর নগরীর তালাইমারীর অবৈধ ঘাট দিয়ে এবার সিসি ক্যামেরা বসিয়ে বালু উত্তোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল আলম বেন্টু। নগরীর বাইরে তাঁর লিজ নেওয়া বালুঘাট ও বালুমহাল চরশ্যামপুর ও চরখিদিরপুর থেকে বালু উত্তোলনে উচ্চ আদালতের কোনো নিষেধাজ্ঞা না থাকার সুযোগটিই কাজ লাগানোর চেষ্টা করছেন তিনি।

চরশ্যামপুর ও চরখিদিরপুরে বালু উত্তোলনের ইজারা পেয়েছেন আজিজুল আলম বেন্টু। কিন্তু তিনি নগরীর তালাইমারী এলাকার পদ্মা নদীর বালু লুট করেছেন। সেই বালু তিনি তালাইমারি ঘাট দিয়ে শহরে সরবরাহ করছেন। তালাইমারী ঘাটটি নগরীর ভেতরে, যেটি তিনি অবৈধভাবে দখলে নিয়েছেন। এ নিয়ে উচ্চ আদালতে রিট করলে আদালত তালাইমারী ঘাট দিয়ে বালু উত্তোলন ও পরিবহন বন্ধ করার নির্দেশ দেন। এই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে রাজশাহীর জেলা প্রশাসকের নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গিয়ে গত ২৪ জুলাই তালাইমারী ঘাট দিয়ে বালু উত্তোলন ও পরিবহন বন্ধ করে দেন। কিন্তু আজিজুল আলম বেন্টু দাবি করেছেন, তিনি তালাইমারী বালুমহাল থেকে বালু উত্তোলন করছেন না। তাঁর লিজ নেওয়া বালুমহাল থেকেই বালু উত্তোলন করছেন। তবে তালাইমারী ঘাট দিয়ে শুধু পরিবহন করা হচ্ছিল। আবারও সেটিই করা হবে। এ কারণে তিনি তালাইমারী ঘাটে সিসি ক্যামেরাও বসিয়েছেন বলে জানান।

এদিকে রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হক জানান, সিসি ক্যামেরা বসিয়ে তালাইমারী ঘাট দিয়ে বালু উত্তোলন ও পরিবহনের কোনো সুযোগ নেই। এটি করা হলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা