kalerkantho

সড়ক ধসে পুকুরে

নাটোর প্রতিনিধি   

২৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সড়ক ধসে পুকুরে

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার মোমিনপুর থেকে সমসকলসি সড়কটির কয়েকটি স্থানে ভেঙে গিয়ে পাশের পুকুরে ধসে পড়েছে। ছবি : কালের কণ্ঠ

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার মোমিনপুর থেকে সমসকলসি পর্যন্ত সড়কটি ভেঙে কোথাও কোথাও পুকুর ও খালের সঙ্গে মিশে গেছে। খানাখন্দে ভরা এই সড়কে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে যানবাহন। যেকোনো মুহূর্তেই ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালে সাড়ে তিন কিলোমিটার রাস্তা পাকা করা হয়। কিন্তু রাস্তার ধারে তিনটি পুকুরের পাশে ওয়াল নির্মাণ করা হয়নি। ফলে পুকুরগুলোর পাশের মাটি ধসে রাস্তা ভেঙে পুকুরে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় লোকজন বাঁশের বেড়া দিয়ে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা করছে কিন্তু হচ্ছে না। তা ছাড়া খানাখন্দে ভরা এই সড়কে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে যানবাহন। বর্ষার পানিতে সড়কটি পানিতে ডুবে যায়। এর ফলে যেকোনো মুহূর্তে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে। সমসকলসি গ্রামের পাখিপ্রেমী জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত যুবক জুয়েল রানা বলেন, ‘মোমিনপুর বাজার থেকে সিংগা, দিয়ারপাড়া, সমসকলসি স্কুল মোড়, সমসকলসি, রামশারকাজিপুর, আমতলী বাজারসহ পার্শ্ববর্তী অন্যান্য গ্রামের বাসিন্দাদের জন্য সড়কটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এই সড়কের পাশেই রয়েছে কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। তা ছাড়া কৃষকদের উৎপাদিত পণ্য এই সড়কের মাধ্যমেই পরিবহন করা হয়। কিন্তু রাস্তাটি সংস্কারের অভাবে প্রায় চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বর্ষা মৌসুমের আগেই রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার না করলে পুকুরে বিলীন হয়ে যাবে।’ বিপ্রবেলঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বলেন, ‘রাস্তাটি সংস্কারের জন্য এলজিইডি ও উপজেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছি। কিন্তু এখনো কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।’

নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমরা সড়কটি সংস্কারের জন্য বরাদ্দ চেয়েছি। বরাদ্দ পেলে দ্রুত সংস্কারকাজ শুরু করতে পারব।’

মন্তব্য