kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

দিনাজপুর ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল

দুই মাস ধরে অস্ত্রোপচার বন্ধ

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

১৯ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিনাজপুর ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে প্রায় দুই মাস ধরে সব ধরনের অপারেশন বন্ধ রয়েছে। হাসাপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, সার্জিক্যাল বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না থাকায় এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। আর তাই অপারেশনের জন্য ভর্তি হতে আসা রোগীদের ফেরত দেওয়া হচ্ছে। গত ২৩ জুন থেকে বন্ধ থাকা এ অপারেশন কার্যক্রম কবে চালু হবে তাও নিশ্চিত করে বলতে পারছে না কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. মো. পারভেজ সোহেল রানা জানান, এখানে ডা. দ্বিজেন বর্মণ ও ডা. শিলা দিত্য শীল অপারেশন করতেন। কিন্তু ডা. দ্বিজেন বর্মণ সহকারী অধ্যাপক হিসেবে প্রমোশন পেয়ে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চলে গেছেন। আর শিলা দিত্য বিরল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্ব পালন করছেন। তাই এখানে প্রসূতি ছাড়া সব ধরনের অপারেশন বন্ধ রয়েছে।

এ ব্যাপারে ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আহাদ আলী বলেন, ‘গত মে মাসে এ হাসপাতালে মেজর অপারেশন হয়েছে ৫৭টি এবং মাইনর অপারেশন হয়েছে ১২৭টি। জুন মাসে মেজর অপারেশন হয়েছে ৫৬টি এবং মাইনর অপারেশন হয়েছে ১৩৮টি। গড়ে প্রতি মাসে কমপক্ষে ১৭৫টি অপারেশন হতো। বর্তমানে সার্জিক্যাল বিশেষজ্ঞ না থাকায় অপারেশন করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই প্রতিদিনই রোগী ফিরে যাচ্ছে।’

সিভিল সার্জন ডা. আব্দুছ কুদ্দুছ বলেন, ‘স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে চিকিৎসক চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসক পেলেই এ সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা