kalerkantho

ছেলের পিটুনিতে পা ভাঙল বৃদ্ধ বাবার

বামনা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

১৭ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরগুনার বামনা উপজেলার ছোনবুনিয়া গ্রামের অশীতিপর বৃদ্ধ আব্দুর রশিদ হাওলাদার। একটি খুপরিঘরে একাই বসবাস করেন তিনি। কখনো খেতে পান, আবার কখনো না খেয়েই দিন কাটাতে হয়। স্ত্রীও তাঁকে ছেড়ে ছোট ছেলের কাছে থাকেন। অথচ এক একর ৬৫ শতাংশ জমির মালিক তিনি। দুই ছেলে আর চার মেয়ে তাঁর। সবাইকে এরই মধ্যে বিয়ে দিয়েছেন।

ছেলেদের নামে তাঁর সমুদয় সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় ছোট ছেলের হাতে প্রতিনিয়তই নির্যাতনের শিকার হন আব্দুর রশিদ। তাঁর বড় ছেলের নাম আলমগীর হাওলাদার ও ছোট ছেলে মো. জাহাঙ্গীর হাওলাদার। বড় ছেলে অনেক আগেই বাড়ি থেকে একটু দূরে ঘর নির্মাণ করেছেন। সেখানেই তিনি তাঁর সন্তানদের নিয়ে থাকেন। ছোট ছেলে জাহাঙ্গীরের সঙ্গে থাকেন তাঁর মা। ছোট ছেলের আলিশান রং করা টিনশেড ঘরের পাশে একটি খুপরিঘরে ঠাঁই হয়েছে বৃদ্ধ বাবার। বৃদ্ধ বাবার অভিযোগ, জমি লিখে না দেওয়ায় প্রায় তিন মাস আগে পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েছে ছোট ছেলে জাহাঙ্গীর হাওলাদার। এখন ভাঙা পা নিয়ে তিনি শয্যাশায়ী। একদিকে চলার অক্ষমতা, অন্যদিকে পেট ভরে দুমুঠো ভাত খেতে না পাওয়ায় মৃত্যুর জন্য প্রহর গুনছেন ওই অশীতিপর বৃদ্ধ।

মন্তব্য