kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

কুলাউড়া

ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ১০ দাবি

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

৭ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস উপলক্ষে কুলাউড়ায় গতকাল মঙ্গলবার আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আন্তঃপুঞ্জি উন্নয়ন সংগঠনের (কুবরাজ) আয়োজনে লক্ষ্মীপুর মিশন উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে আলোচনাসভায় বক্তারা বলেন, আদিবাসীদের মাতৃভাষা সংরক্ষণ ও বিকাশের লক্ষ্যে কুলাউড়া এলাকায় আদিবাসী ভাষা ও সংস্কৃতি একাডেমি প্রতিষ্ঠা করতে হবে, যাতে আদিবাসী শিশুরা একাডেমিতে আদিবাসী ভাষা চর্চা, সংরক্ষণ ও বিকাশের চর্চা করতে পারে।

পাঁচটি আদিবাসী ভাষায় প্রাথমিক স্তর পর্যন্ত পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন ও শিক্ষা কার্যক্রম চালু হয়েছে, কিন্তু কোথাও পৃথকভাবে আদিবাসী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়নি। অবিলম্বে বিশেষ ব্যবস্থায় আদিবাসী শিক্ষক নিয়োগের প্রদক্ষেপ গ্রহণ করা। শিক্ষার মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় আদিবাসীদের শিক্ষা বিস্তারে বিশেষ বাজেট বরাদ্দ করা। সমতল অঞ্চলের আদিবাসীদের ভূমি সমস্যা সমাধানের জন্য অবিলম্বে ভূমি কমিশন গঠন করা, আদিবাসীদের ঐতিহ্যগত ও প্রথাগত ভূমি অধিকারের স্বীকৃতি প্রদান করা। মৌলভীবাজার জেলার ঝিমাই, পাল্লাতল ও নাহার খাসিয়া পুঞ্জির খাসিয়াদের ভূমি অধিকার নিশ্চিত করা, চা বাগানে বাগান কর্তৃক পুঞ্জি এলাকার গাছ কাটা বন্ধ করা, আদিবাসীদের ওপর সাম্প্রদায়িক আক্রমণ, মিথ্যা মামলা ও অপপ্রচার বন্ধ করা, আদিবাসী নারীসহ সব নাগরিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। এ ছাড়া জাতিসংঘ ঘোষিত ৯ আগস্ট আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস রাষ্ট্রীয়ভাবে পালন করার আহ্বানসহ ১০ দফা দাবি জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে আন্তঃপুঞ্জি উন্নয়ন সংগঠনের (কুবরাজ) সভাপতি প্রত্যুষ আসাক্রার সভাপতিত্বে ও কুলাউড়া আদিবাসী নারী উন্নয়ন ফেডারেশনের সভানেত্রী মনিকা খংলার সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সফি আহমদ সলমান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা