kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১         

লক্ষ্মীপুরে চাঁদা না পেয়ে প্রবাসীর দেয়াল ভাঙচুরের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লক্ষ্মীপুরে চাঁদা না পেয়ে এক সৌদিপ্রবাসীর জমিতে নির্মাণাধীন সীমানাপ্রাচীর (দেয়াল) ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার দুপুরে প্রবাসীর শ্বশুর নাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে মোহাম্মদ আলী ও জোবায়েদ আলী নামের দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। গত শুক্রবার রাতে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সমসেরাবাদ এলাকায় প্রবাসী আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত মোহাম্মদ আলী ও জোবায়েদ আলী সদর উপজেলার ধর্মপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ মোহম্মদের ছেলে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড সমসেরাবাদ এলাকায় প্রবাসী আনোয়ার হোসেন ৩ শতাংশ জমি কেনেন। এর পর থেকেই তিনি জমিটি ভোগদখল করে আসছেন। আনোয়ার উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের রতনপুর গ্রামের মৃত মোহম্মদ উল্যার ছেলে। এদিকে ওয়ারিশ সূত্রে মালিকানা দাবি করে মোহাম্মদ আলী ও জোবায়েদ আলীর অভিযোগে ওই জমিতে আদালত ১৪৪ ধারা জারি করেন। পরে প্রমাণ সাপেক্ষে আদালত আনোয়ারের পক্ষে রায় দেন। সম্প্রতি আনোয়ার দেশে এসে ওই জমিতে নিরাপত্তা দেয়াল নির্মাণের উদ্যোগ নেন। শুক্রবার দেয়ালের কাজ শুরু হয়। কিন্তু রাতে মোহাম্মদ আলী ও জোবায়েদ আলী লোকজন দিয়ে দেয়ালটি ভেঙ্গে দেন। দুই লাখ টাকা চাঁদা না দেওয়ায় তাঁরা ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

মামলার বাদী নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘টাকা না দেওয়ায় দুই ভাই মিলে আনোয়ারের জমির ওপর নির্মাণাধীন সীমানাপ্রাচীরটি ভেঙে দিয়েছে। এতে তাঁর এক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।’

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত জোবায়েদ আলী বলেন, ‘কে বা কারা দেয়াল ভাঙছে তা আমরা জানি না। আমাদের হয়রানি করার জন্য এ অভিযোগ আনা হয়েছে।’

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুল আলিম বলেন, ‘অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। ভাঙচুরের সত্যতা পাওয়া গেছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা