kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

অপহরণের ৩২ ঘণ্টা পর যুবক উদ্ধার, আটক ২

নেত্রকোনা প্রতিনিধি   

১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অপহরণ করে মুক্তিপণ চাওয়ার ৩২ ঘণ্টা পর অপহূত এক যুবককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার গাজীপুর চান্দিনা চৌরাস্তার একটি বাড়ি থেকে তাঁকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় অপহরণ চক্রের দুই সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

অপহূত রুবেল মিয়া (২৩) নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামের মো. আব্দুল্লাহর ছেলে।

নেত্রকোনার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার এস এম আশরাফুল আলম গতকাল এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, রুবেল মিয়া সিঙ্গাপুর যাওয়ার জন্য ঢাকার একটি ট্রেনিং সেন্টারে সিলিং বোর্ড তৈরির তিন মাসের প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন। ঈদের ছুটি শেষে গত রবিবার বিকেলে বাসে করে ঢাকায় ফিরছিলেন তিনি। বাসে তাঁর সঙ্গে অপহরণচক্রের দুই নারী সদস্যের পরিচয় হয়। কথাবার্তা বলে ওই দুজন তাঁর সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলে। বাসটি সন্ধ্যায় গাজীপুর চান্দিনা চৌরাস্তায় পৌঁছলে তারা রুবেলকে ওই রাতে তাদের বাসায় থেকে পরদিন ঢাকায় যেতে অনুরোধ করে। রুবেল তাদের প্রস্তাবে রাজি হলে তাঁকে বাস থেকে নামিয়ে একটি বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ওই দুই নারী তাদের অন্য সঙ্গীদের নিয়ে তাঁকে মারধর করে আটকে রাখে এবং তাঁর বাবার কাছে ফোন দিয়ে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

রুবেলের বাবা আব্দুল্লাহ সোমবার নেত্রকোনা পুলিশ সুপারের সহযোগিতা চান। পুলিশ সুপারের নির্দেশে ডিবির একটি দল মুক্তিপণের টাকা নিয়ে মঙ্গলবার চান্দিনা চৌরাস্তায় যায়। মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তারা অপহরণ চক্রের গফরগাঁওয়ের ছয়আনী নামাপাড়া গ্রামের পাভেল মিয়া (২৫) ও পাগলা উপজেলার ডিক্রীভূমি গ্রামের সুজন উদ্দিন অপুকে (২৫) আটক করে। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী চৌরাস্তা ঈদগাহ মাঠের পাশের একটি বাসা থেকে রুবেল মিয়াকে উদ্ধার করা হয়।

মন্তব্য