kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৩ আগস্ট ২০২০ । ২২ জিলহজ ১৪৪১

নবীগঞ্জে ফার্মেসি মালিকের ‘চিকিৎসায়’ মারা গেল রোগী

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ফার্মেসি মালিকের ভুল চিকিৎসায় রোগী আয়েশা বেগমের (৫৫) মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ। গত মঙ্গলবার রাতে বাশডর দেবপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। আয়েশা একই গ্রামের হোসেন মিয়ার স্ত্রী।

অন্যদিকে আয়েশার মৃত্যুর পর থেকেই গ্রাম্য মাতব্বররা বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করতে থাকে। কিন্তু তারা ব্যর্থ হয়। পরে আয়েশার পরিবারের লোকজন ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ গতকাল বুধবার সকালে থানায় নিয়ে যায়। কিন্তু বিকেল পর্যন্ত লাশটি সেখানেই পড়ে ছিল। পরে পুলিশ সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি মর্গে পাঠায়।

আয়েশা উচ্চ রক্তচাপের রোগী ছিলেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় তাঁকে উচ্চ রক্তচাপ কমার ওষুধ খাওয়ানো হয়, একই সঙ্গে তাঁর মাথায় পানি ঢালা হয়। পরে পরিবারের লোকজন ফার্মেসি মালিক একই গ্রামের লকুস মিয়াকে ডেকে আনেন। এ সময় তিনি আয়েশার শরীরে ক্লিনোসল ৫০০ মিলি আইভি স্যালাইন পুশ করেন। এর কয়েক ঘণ্টা পরই রোগীর মৃত্যু হয়। এরপর থেকেই গ্রাম্য মাতব্বররা বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা করতে থাকে। রাতভর চেষ্টার পর ব্যর্থ হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সাইফুর রহমান সাগরের বক্তব্য, ফার্মেসি মালিকের উচিত ছিল রোগীকে হাসাপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া। আর উচ্চ রক্তচাপের রোগীকে তিনি ক্লিনোসল আইভি স্যালাইন দিতে পারেন না। যদিও এ স্যালাইন রোগীর মৃত্যু কারণ হতে পারে না। স্ট্রোক কিংবা হার্ট অ্যাটাকের কারণে রোগীর মৃত্যু হতে পারে বলে ধারণা করছেন তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা