kalerkantho

রবিবার। ১৮ আগস্ট ২০১৯। ৩ ভাদ্র ১৪২৬। ১৬ জিলহজ ১৪৪০

রায়পুরায় নদীভাঙনে ঈদ আনন্দ মাটি ১২ পরিবারের

রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি   

৪ জুন, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নরসিংদীর রায়পুরায় মেথিকান্দা প্রাইমারি স্কুলের পাশে খোলা আকাশের নিচে ৯টি তাঁবু ও স্কুলের বারান্দায় গাদাগাদি করে বসবাস করছে মেঘনার ভাঙনে সহায়-সম্বলহারা ১২ পরিবার। পেটপুরে খেয়ে না খেয়ে কোনোমতে তাদের দিন কাটছে। তাই ঈদ নিয়ে তাদের কোনো ভাবনা নেই।

অসহায় পরিবারগুলো জানায়, ১৫ দিন ধরে তারা মেথিকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের খোলা জায়গায় আশ্রয় নিয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন বা সমাজের বিত্তবান কেউ সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেনি। চিকিৎসা ও খাবারের অভাবে কাতরাচ্ছে তারা। শিশুদের পরনে নেই জামা-প্যান্ট।

সিরাজুল ইসলাম জানান, চাঁদপুরে তাঁর বাড়ি। মেঘনার ভাঙনে তাঁর ভিটেমাটি হারিয়ে গেছে। পরে সেখানকার একটি বাঁধে আশ্রয় নেন। সেখানে সরকারি ত্রাণ, মাথা গোঁজার ঠাঁই ও পর্যাপ্ত কর্মসংস্থান ব্যবস্থা ছিল না। তাই কর্মসংস্থানের আশায় ১৫ দিন আগে এখানে এসেছেন তাঁরা। তিনি আরো জানান, এখনো কোনো কাজের সন্ধান করতে পারেননি। সংসারে তাঁর স্ত্রী, স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ে ও দুই নাতি রয়েছে। এখানে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেলেও খাবারের জন্য তাঁদের খুব কষ্ট হচ্ছে। এবারের ঈদ নিয়ে তাঁদের কোনো পরিকল্পনা নেই। ছেলেমেয়েদের নতুন জামাও দিতে পারবেন না তাঁরা।

মেথিকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান জানান, পরিবারগুলো স্কুলের পাশে মানবেতর জীবনযাপন করছে। অনেকে আবার স্কুলের বারান্দায় অবস্থান নিয়েছে।

 

মন্তব্য