kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

নবীনগরে শিক্ষকের পিটুনিতে নষ্ট হচ্ছে ছাত্রের চোখ!

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি   

২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে ক্লাসে পড়া না পারার কারণে শিক্ষকের পিটুনির শিকার হয়ে রিফাত মিয়া নামের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীর এক চোখ নষ্ট হতে যাচ্ছে। উপজেলার শতাব্দী প্রাচীন বিদ্যাকুট অমর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে গত বুধবার এই ঘটনা ঘটে।

এদিকে রিফাতের চোখ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. হাবিবুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, রিফাতের বাঁ চোখের দৃষ্টি একেবারেই নষ্ট হয়ে গেছে। তবে উন্নত চিকিৎসা করাতে পারলে দৃষ্টিশক্তি ফিরেও আসতে পারে। তবে সেই চিকিৎসা বেশ ব্যয়বহুল।

জানা গেছে, গত বুধবার ক্লাসে পড়া না পারার কারণে শ্রেণিশিক্ষক জাবেদ মিয়া ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রিফাত মিয়াকে বেত্রাঘাত করেন। বেতের আঘাতে রিফাতের বাঁ চোখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। গুরুতর অবস্থায় তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাকে ওই দিনই ঢাকার ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে একাধিকবার চেষ্টা করেও অভিযুক্ত শিক্ষক জাবেদ মিয়া ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। এরই মধ্যে ওই শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তা ছাড়া ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি করে দিয়েছি। রিফাতের চিকিৎসার জন্য যা যা করা দরকার, আমরা করব। প্রয়োজনে তাকে বিদেশে নিয়ে যাব।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম বলেন, এ বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট পাওয়ার পর সে অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য