kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২০ জুন ২০১৯। ৬ আষাঢ় ১৪২৬। ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

ঝড়ে উড়ে গেছে ভবনের চালা

আকাশের নিচে চলছে পাঠদান

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



 আকাশের নিচে চলছে পাঠদান

রাজবাড়ী সদর উপজেলার পূর্ব উড়াকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদান চলছে গাছতলায়। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের পূর্ব উড়াকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা খোলা আকাশের নিচে ক্লাস করছে।

১২ দিন আগে ঝড়ে ওই বিদ্যালয়ের একটি মাত্র ভবনের টিনের চালা উড়ে যাওয়ায় এ দূর্ভোগের সৃষ্টি হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ওই ভবন মেরামত করা সম্ভব হয়নি।

জানা গেছে, ১৯৭০ সালে বিদ্যালয়টি স্থাপন করা হয়। সে সময় প্রমত্তা পদ্মা বিদ্যালয় থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে থাকলেও তীর ভাঙতে ভাঙতে এখন তা বিদ্যালয়ের কাছাকাছি। বিদ্যালয়টিতে ১৬৮ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। গত ৩১ মার্চ ঝড়ে বিদ্যালয়ের টিনের চাল উড়ে যায়। সেই সঙ্গে ভবনটির দেয়ালও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কয়েক দিন পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রেখে এখন মাঠে গাছের নিচে ক্লাস নিচ্ছেন শিক্ষকরা। শিক্ষার্থীদের কেউ কেউ মাটিতে বিছানো পাটিতে বসেই পড়ছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মর্জিনা খাতুন আন্না বলেন, ‘বিদ্যালয়টি এমনিতেই পদ্মার ভাঙন ঝুঁকিতে। এবার ঝড়ে বিদ্যালয়ের টিনের ছাউনি উড়ে গেছে। বাধ্য হয়েই গাছের নিচে ক্লাস নিতে হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত ভবন মেরামতে কাজ চলছে।’

বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আমজাদ হোসেন আরজু বলেন, ‘ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনের মেরামত কাজ চলছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করা হবে।’

সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসরিন আক্তার বলেন, ‘বিষয়টি ঊধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। সেই সঙ্গে সংস্কার কাজও করা হচ্ছে। আশা করছি দ্রুত এ সমস্যার সমাধান হবে।’

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুজ্জামান খান বলেন, ‘এর মধ্যে ২৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তবে বিদ্যালয়টি পদ্মা নদীর ভাঙনের কারণে অত্যন্ত ঝুঁকির মুখে। ফলে চেষ্টা করা হচ্ছে বিদ্যালয়টি অন্যত্র স্থানান্তরের।’

মন্তব্য