kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

রৌমারীতে গর্ভপাতে গৃহবধূর মৃত্যু

মামলায় গ্রেপ্তার অভিযুক্ত নার্স

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম   

১৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুড়িগ্রামের রৌমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অবৈধভাবে গর্ভপাতের সময় গৃহবধূর মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত সিনিয়র নার্স হোসনে আরা বেগমের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করা হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে রৌমারী থানায় মামলাটি করেন গৃহবধূর স্বামী আব্দুল শেখ। এ মামলায় হোসনে আরাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে গতকাল শনিবার জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে তাঁকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. হুমায়ুন কবীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগ পাওয়া গেছে, উপজেলার দুর্গম চরকাজাইকাটা গ্রামের দিনমজুর আব্দুল শেখের স্ত্রী জামেলা বেগম (৪২) পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। এ দম্পতির দুই ছেলে ও এক মেয়ে আছে। শুক্রবার দুপুরে স্ত্রীকে নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান আব্দুল শেখ। এ সময় বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে কর্তব্যরত সিনিয়র নার্স হোসনে আরা তাঁদের গর্ভপাত করানোর পরামর্শ দেন। পাঁচ হাজার টাকার বিনিময়ে জামেলাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি না করে এবং কর্মকর্তা বা চিকিৎসককে না জানিয়ে তাঁর গর্ভপাত করতে যান হোসনে আরা। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই জামেলার মৃত্যু হয়।

আব্দুল শেখ অভিযোগ করেন, ‘নার্সের কথামতো আমরা রাজি হই। কিছু বুঝে ওঠার আগেই নার্স এসে বলে রোগী মারা গেছে। আমার স্ত্রীর মৃত্যুর জন্য সে (নার্স) দায়ী। সে নিজ হাতে আমার স্ত্রীকে মেরে ফেলেছে।’

এ বিষয়ে রৌমারী থানার ওসি আবু মো. দিলওয়ার হাসান জানান, রৌমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গৃহবধূর মৃত্যুর ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে। এ মামলায় অভিযুক্ত নার্সকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা