kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

সৈয়দপুরে ভোটারশূন্য কেন্দ্র

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

১১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৈয়দপুরে ভোটারশূন্য কেন্দ্র

নীলফামারী জেলা সদরের রাননগর ইউনিয়নের বিষমুড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র। ছবিটি গতকাল দুপুরে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

নীলফামারীর সৈয়দপুরের ভোটকেন্দ্রগুলো ছিল প্রায় ভোটারশূন্য। নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের এমন অনাগ্রহ দেখে প্রার্থীরাসহ তাঁদের কর্মী ও সমর্থকরা হতাশ হয়ে পড়েন। আর এ অবস্থায় নির্বাচনসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, আইন-শৃঙ্খলার কাজে নিয়োজিত পুলিশ ও আনসার সদস্যরা অলস সময় পার করেছেন। গতকাল রবিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত সৈয়দপুরের অনেক ভোটকেন্দ্র সরেজমিন ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

সৈয়দপুর সরকারি কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, কিছু সময় পর পর এক-দুজন করে ভোটার এসে ভোট দিয়ে যাচ্ছে। ভোটকেন্দ্রের পশ্চিম অংশে সৈয়দপুর পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের ভোট গ্রহণ করা হয়। এ কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা ছিল দুই হাজার ৬৫৫ জন। দুপুর সোয়া ১২টা পর্যন্ত কেন্দ্রের ছয়টি বুথে একটি করে ব্যালট পেপারের বই চলছিল। কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার সৈয়দপুর সরকারি কারিগরি কলেজের প্রভাষক এরশাদ হোসেন মণ্ডল জানান, প্রতিটি বুথে মাত্র ১৫-২০টি ভোট পড়েছে।

দুপুর সোয়া ১টায় উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের বাঙ্গালীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রিসাইডিং অফিসার  জাকিরুল ইসলামের সঙ্গে কথা হয়। তিনি জানান, দুপুর পর্যন্ত কেন্দ্রের ৯টি বুথে মাত্র ৫০০টির মতো ভোট পড়েছে।

দুপুর ১টা ২৫ মিনিটে একই ইউনিয়নের চৌমুহনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ভোটারদের উপস্থিতি নেই বললেই চলে। আর এরই ফাঁকে নির্বাচনে পোলিং অফিসারের দায়িত্বে থাকা অনেকেই দুুপুরের খাবার খাচ্ছিলেন।

বিকেলে শহরের গোলাহাট রেলওয়ে কলোনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে কথা হয় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আজমল হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘ভোটারদের উপস্থিতি দেখে আর কেন্দ্রের ভেতরে ঢোকার ইচ্ছেই হচ্ছে না। এত কম ভোটার উপস্থিতি হবে ধারণাও করিনি।’

সৈয়দপুর উপজেলায় ৭৮টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ হয়েছে। উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোখছেদুল মোমিন, জয়নাল আবেদীন ও রুহুল আলম মাস্টার। ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আজমল হোসেন, সুরত আলী বাবু, মনোয়ার হোসেন মন্টু ও জাহাঙ্গীর সরকার। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ছিলেন সানজিদা বেগম লাকী, রওনক জাহান রিনু ও হাসিনা বেগম।

 

 

মন্তব্য