kalerkantho

সোমবার । ২১ অক্টোবর ২০১৯। ৫ কাতির্ক ১৪২৬। ২১ সফর ১৪৪১       

মেয়েকে উত্ত্যক্তে বাধা দেওয়ায় বিজিবি সদস্যের হাতে বাবা লাঞ্ছিত

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় উত্ত্যক্ত করতে বাধা দেওয়ায় রাসেল মিয়া (২৫) নামে বিজিবির এক সদস্যের হাতে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হয়েছেন এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া এক মেয়ে শিক্ষার্থীর বাবা। গতকাল সোমবার সকালে উপজেলার আঠারবাড়ী এমসি উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। পরে আতঙ্কগ্রস্ত অবস্থায় মেয়েটি ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা পরীক্ষায় অংশ নেয়। ওই ঘটনায় মেয়েটির বাবা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

রাসেল উপজেলার আঠারবাড়ী গ্রামের রইছ উদ্দিনের ছেলে। তিনি বিজিবির সদস্য হিসেবে কুমিল্লায় কর্মরত আছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দুই বছর আগে ওই মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাব দেন রাসেল। কিন্তু মেয়ের বয়স না হওয়ায় এই বিয়েতে রাজি হয়নি মেয়েটির পরিবার। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মেয়েকে তুলে নিয়ে যাওয়ারও হুমকি দেন রাসেল। বিষয়টি রাসেলের পরিবারকে জানানো হলেও কোনো প্রতিকার পাওয়া যায়নি। বরং বাড়িতে ছুটি কাটাতে এসে রাসেল প্রতিনিয়ত মেয়েকে উত্ত্যক্ত করতে শুরু করেন।

মেয়ের বাবা বলেন, ‘১৫ দিন আগে রাসেল আবারও বিয়ের প্রস্তাব পাঠান। কিন্তু এতেও আমরা রাজি না হওয়ায় রাসেল এলাকায় নানা ধরনের কথা ছড়াতে শুরু করেন। এতে এক ধরনের আতঙ্ক নিয়েই গতকাল মেয়েকে পরীক্ষা দিতে নিয়ে যাই। পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের আগে রাসেল সামনে এসে আবারও আমার মেয়েকে প্রেম নিবেদন করেন। ওই সময় আমি তাঁকে বাধা দিতে এগিয়ে গেলে তিনি আমাকে লাঞ্ছিত করেন। পরে স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে রাসেল সেখান থেকে পালিয়ে যান।’   

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মতিন ভুঁইয়া জানান, মেয়েটি নবম শ্রেণিতে পড়ার সময় থেকেই রাসেল তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছেন। এ ঘটনায় রাসেলের পরিবারের লোকজনকে জানানো হলেও তারা কোনো ধরনের ব্যবস্থা নেয়নি। এখন লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। আজ (মঙ্গলবার) বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা