kalerkantho

শুক্রবার । ২২ নভেম্বর ২০১৯। ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ময়মনসিংহে চিকিৎসকের অবহেলা

নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ, আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ   

২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহ শহরের কৃষ্টপুর আলিয়া মাদরাসা রোডের পরশ প্রাইভেট হাসপাতাল নামের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় এক নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে মৃত শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে গতকাল সোমবার কোতোয়ালি থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়। অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ হাসপাতালের তিন পরিচালককে আটক করেছে। আটকরা হলো রেজাউল করিম মুরাদ, আজাহার মাহমুদ জুয়েল ও  আশরাফুর রহমান রনি।

শিশুটির পরিবারের সদস্যরা জানায়, গত রোববার রাত ১২টার দিকে পরশ প্রাইভেট হাসপাতালে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামের জান্নাত বেগম (২২) সিজারিয়ানের মাধ্যমে এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। জন্মের আধা ঘণ্টা পর পরিবারের হাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মৃত সন্তান তুলে দেয়। এ সময় পরিবারের লোকজন মৃত শিশুটির পিঠে ও গালে কাটা চিহ্ন দেখতে পায়।

প্রসূতির স্বজনরা অভিযোগ করে, সিজার করার সময় ব্লেডের আঘাতে শিশুটির একাধিক স্থান কেটে গেছে। আর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে।

পরশ প্রাইভেট হাসপাতালের পরিচালক রেজাউল কবির মুরাদ জানান, প্রচণ্ড প্রসব ব্যথা নিয়ে জান্নাতকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে দু-এক দিন আগেই শিশুটি মারা গিয়েছিল।

ময়মনসংিহের সিভিল সার্জন ডা. এ কে এম আব্দুর রউফ জানান, পরশ প্রাইভেট হাসপাতালের সরকারি কোনো রেজিস্ট্রেশন নেই। শিশু মৃত্যুর ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনো অবহেলা আছে কি না, তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শিশুর পরিবার এ বিষয়ে অভিযোগ নিয়ে সোমবার সকালে প্রেস ক্লাবে আসে। এরপর তারা কোতোয়ালি থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়। অভিযোগ পেয়ে হাসপাতালের তিন পরিচালককে আটক করে পুলিশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা