kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

সুনামগঞ্জ

চেয়ারম্যানের নির্দেশে হামলা!

সুনামগঞ্জ, তাহিরপুর ও দিরাই-শাল্লা প্রতিনিধি   

১৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চেয়ারম্যানের নির্দেশে হামলা!

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি) গঠনে অনিয়মের প্রতিবাদ করায় যুবলীগ নেতার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে দফায় দফায় হামলা ও ভাঙচুর করেছে উপজেলা চেয়ারম্যানের লোকজন। গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে দিরাই পৌর সদরের থানা রোডের উপজেলা যুবলীগ নেতা মোহন চৌধুরীর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পপুলার এন্টারপ্রাইজে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, দিরাই উপজেলায় চলতি বছরের বোরো ফসল রক্ষায় হাওর এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ মেরামতের জন্য প্রকল্প কমিটি গঠনের কাজ শুরু করে উপজেলা প্রশাসন। শুরুতেই উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদার আর্থিক সুবিধা নিয়ে নিজের পছন্দের লোক দিয়ে প্রকল্প কমিটি গঠন করেন। এর প্রতিবাদ করেন উপজেলা যুবলীগের প্রস্তাবিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোহন চৌধুরী। প্রতিবাদ করায় লোক দিয়ে মোহন চৌধুরীর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা চালান চেয়ারম্যান।

যুবলীগ নেতা মোহন চৌধুরী বলেন, ‘বিএনপি থেকে নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদার আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে লুটপাটের মহোৎসবে মেতেছেন। আর্থিক সুবিধা নিয়ে একাধিক হাওর রক্ষা বাঁধের কমিটি গঠনে অনিয়মের আশ্রয় নিয়েছেন তিনি। এর কারণ জানতে চাইলে তিনি আমাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। এর কিছুক্ষণ পর উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই শামসুজ্জামান ও চাচাতো ভাই আইবুর রহমানের নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক লোক আমার দিরাই থানার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পপুলার এন্টারপ্রাইজে ঢুকে সন্ত্রাসী হামলা চালায়। আমি পালিয়ে গিয়ে কোনো রকমে আত্মরক্ষা করি। আক্রমণকারীরা আমার দোকানের মালপত্র ভাঙচুর, ক্যাশ বাক্স থেকে নগদ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে।’

এ বিষয়ে দিরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদার বলেন, ‘মোহন চৌধুরী আমার সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছে। বিষয়টি আমার ভাই ও ভাতিজা জানতে পেরে কিছুটা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। তবে হামলার কোনো ঘটনা ঘটেনি। তা ছাড়া এখানে হাওর রক্ষা বাঁধের প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি গঠন সংক্রান্ত কোনো বিষয় নেই।’

দিরাই থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এদিকে হাওরে ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণসহ তিন দফা দাবিতে সুনামগঞ্জের ১০ উপজেলায় একযোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে ‘হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনে’র উদ্যোগে জেলাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

গতকাল সকাল ১১টায় সুনামগঞ্জ শহরের মুক্তিযোদ্ধা আলফাত স্কয়ারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে নেতাকর্মীরা। তাদের আহ্বানে দিরাই, শাল্লা, জগন্নাথপুর, ধর্মপাশা, তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ছাতক, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মানববন্ধনে অবিলম্বে গণশুনানির মাধ্যমে পিআইসি গঠন করে দ্রুত বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরুর দাবি জানানো হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা