kalerkantho

লক্ষ্মীপুরে শিকলে বেঁধে ছাত্রকে নির্যাতন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লক্ষ্মীপুরে ইয়াছিন আরাফাত নামের এক ছাত্রকে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে শিক্ষকের বিরুদ্ধে। আহত ওই ছাত্র লাহারকান্দি গ্রামের আবদুর লতিফের ছেলে এবং রওজাতুল উলুম ইসলামিয়া মাদরাসার হিফজুল কোরআন বিভাগের ছাত্র।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা। এর আগে সদর উপজেলার পশ্চিম লাহারকান্দি এলাকার রওজাতুল উলুম ইসলামিয়া মাদরাসায় এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক আবদুল কাদের ফয়েজী পলাতক রয়েছেন।

আহত ছাত্রের ভগ্নিপতি মো. সলিম জানান, হিফজুল কোরআন বিভাগের ছাত্র ইয়াছিন আরাফাত বেশ কিছু সমস্যার জন্য বর্তমান মাদরাসা হতে অন্যত্র ভর্তি হতে চায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদরাসার শিক্ষক আবদুল কাদের তাকে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখে বেদম মারধর করেন। পরে তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আনোয়ার হোসেন জানান, ছাত্রটির শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে। লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে হাসপাতাল ও ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য