kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ঘুষের অভিযোগে বরখাস্ত ভূমি জরিপকারী

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোংলায় ১২ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে এক ভূমি জরিপকারীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বন্দরের সিভিল ও হাইড্রোলিক বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নাম ভাঙিয়ে এ টাকা হাতিয়ে নেয় ভূমি জরিপকারী এমরান হোসেন।

মোংলার মেসার্স মীর গ্রুপের এলপিজি প্ল্যানের কনসাল্টিং ফার্মের মার্কেটিং অফিসার খলিলুর রহমান জানান, মীর গ্রুপের এলপিজি প্ল্যানের জন্য বালু ভরাট ও বিদেশ থেকে আমদানি করা অপরিশোধিত গ্যাসবাহী জাহাজ ভেড়ানোর জন্য জেটি নির্মাণের অনুমতি পাইয়ে দিতে ভূমি জরিপকারী (ল্যান্ড সার্ভেয়ার) এমরান হোসেন সোনালী ব্যাংক, ডাচ্-বাংলা ও বিকাশের মাধ্যমে সাড়ে সাত লাখ টাকা ঘুষ নিয়েছেন। বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী সিভিল অ্যান্ড হাইড্রোলিক বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছ থেকে জেটি ও বালু ভরাটের অনুমতি পাইয়ে দিতে ওই টাকা ঘুষ দেওয়া হয়। এ ছাড়াও বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ইউনাইটেড রিফাইনারিজ অ্যান্ড বাল্ক স্টোরেজ লিমিটেডের লে আউট প্ল্যান পাশের অনুমতি পাইয়ে দিতে আরো চার লাখ ৮০ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে এমরানের বিরুদ্ধে। উচ্চ আদালতের নির্দেশে সুন্দরবন এলাকার ১০ কিলোমিটারের মধ্যে পরিবেশ বিনষ্টকারী শিল্প-কারখানা নির্মাণে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও ল্যান্ড সার্ভেয়ার এমরান তদারকি করে অনুমতি পাইয়ে দেবে বলে ঘুষ নেন।

ল্যান্ড সার্ভেয়ার এমরান বলেন, তাঁর বাবা ওই কম্পানির কাছে টাকা পেত। তাই তিনি টাকাগুলো নিয়েছেন। তবে বন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক (প্রশাসন) প্রণব কুমার রায় বলেন, ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে ল্যান্ড সার্ভেয়ার এমরানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বন্দরের সিভিল অ্যান্ড হাইড্রো বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী শওকত আলী বলেন, টাকা লেনদেনের কথা তিনি শুনেছেন। বিষয়টি তদন্তাধীন আছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা