kalerkantho

শুক্রবার । ১৭ জানুয়ারি ২০২০। ৩ মাঘ ১৪২৬। ২০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

মিডডে মিলের চাল বেচলেন প্রধান শিক্ষক

বামনা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বরগুনার বামনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের দুপুরের খাবার প্রকল্প মিডডে মিলের চাল বেচে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, সোমবার বিকেলে উপজেলার পশ্চিম গোলাঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩১০ কেজি চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়। এ চাল বিদ্যালয়ে নেওয়ার পথে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক মো. জামাল হোসেন ৫০ কেজি ওজনের এক বস্তা চাল টেম্পোচালক মো. জসীমের কাছে এক হাজার টাকায় বেচে দেন। ঘটনাটি বামনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেবুন নাহারকে (ইউএনও) জানালে তিনি রামনা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আ. খালেক জমাদ্দারকে ওই চাল উদ্ধারের নির্দেশ দেন। চেয়ারম্যান প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে গোলাঘাটা কড়ইতলা গ্রামের মো. ওহাব আলী বেপারীর বাড়ি থেকে ওই চাল উদ্ধার করে ইউপিতে রাখেন। পরে সংশ্লিষ্টরা বিদ্যালয়টির গুদামে গিয়ে এক বস্তা চাল কম পান। এ বিষয়ে বক্তব্য নিতে মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করে এবং বিদ্যালয়ে গিয়েও অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষককে পাওয়া যায়নি।

ইউএনও জেবুন নাহার কালের কণ্ঠকে বলেন, চেয়ারম্যান ও শিক্ষা কর্মকর্তাকে এ ব্যাপারে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। বামনা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অম্বরিশ চন্দ্র সরকার বলেন, তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা নির্মল চন্দ্রকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা