kalerkantho

রবিবার । ২০ অক্টোবর ২০১৯। ৪ কাতির্ক ১৪২৬। ২০ সফর ১৪৪১                

ভালুকায় সন্তানসহ মায়ের মৃত্যু

স্বামীসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের ভালুকায় চার মাসের শিশুসন্তানসহ গৃহবধূ নাজমা আক্তার ময়নার মৃত্যুর ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। নাজমার বাবা নূহু মিয়া বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে ভালুকা মডেল থানায় মামলাটি করেন।

মামলায় নাজমা আক্তারের স্বামী সাইফুল ইসলাম, শাশুড়ি হালিমা খাতুন, চাচা শ্বশুর আবদুল মজিদ, নানা শ্বশুর আবদুল কুদ্দুসসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে। পেশায় গাড়িচালক সাইফুল ইসলাম উপজেলার হবিরবাড়ি ইউনিয়নের জামিরদিয়া নয়ানীপাড়ার নুরুল ইসলামের ছেলে। এদিকে মামলার এজাহারভুক্ত আসামি আবদুল কদ্দুসকে গ্রেপ্তার করে গতকাল শুক্রবার আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। আবদুল কদ্দুস নয়ানীপাড়ার মফিজ উদ্দিনের ছেলে।

উল্লেখ্য, সাইফুল ইসলামের সঙ্গে প্রায় ছয় বছর আগে একই ইউনিয়নের বড় কাশর গ্রামের নাজমা আক্তার ময়নার বিয়ে হয়। তাঁদের সংসারে সায়মা ও সাদিয়া নামে দুই সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন অজুহাতে টাকা চেয়ে স্ত্রীর ওপর নির্যাতন করতেন সাইফুল। সর্বশেষ শ্বশুরবাড়ি থেকে টাকা এনে একটি গাড়ি কিনে দেওয়ার জন্য স্ত্রীর ওপর চাপ দেয় তাঁর স্বামী।

এ অবস্থায় গত বুধবার রাত ২টার দিকে মোবাইলে ফোন দিয়ে নাজমার বাবা নূহু মিয়াকে বলা হয়, তাঁর মেয়ে বিষ খেয়েছে। রাতেই মেয়ের বাড়ি গিয়ে কাউকে পাননি তিনি। পরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে গিয়ে মেয়ে ও নাতনির নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন। ঘটনার পর নাজমার স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়।

ভালুকা মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার জানান, মামলার এজাহারভুক্ত এক আসামিকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা