kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

এক শিক্ষকে পাঠদান

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনামগঞ্জের হাওরবেষ্টিত তাহিরপুর উপজেলায় পাঁচটি বিদ্যালয়ের পাঠদান চলছে একজন করে শিক্ষক দিয়ে। আর ৯টি বিদ্যালয়ে পাঠদান চলছে দুজন করে শিক্ষক দিয়ে। শিক্ষক সংকটের কারণে ওই সব বিদ্যালয়ে স্বাভাবিক পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

উপজেলা শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় সহকারী শিক্ষকের ১৫৫টি পদ আর প্রধান শিক্ষকের ১২টি পদ শূন্য রয়েছে। তবে সম্প্রতি কয়েকটি বিদ্যালয়ে নিয়ম না মেনে শিক্ষক বদলি করায় সেসব বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকট চরম আকার ধারণ করেছে। প্রধান শিক্ষকরা অধিকাংশ সময় নানা দাপ্তরিক কাজে ব্যস্ত থাকেন বলে সেসব বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রমও বিঘ্ন ঘটছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় সূত্র জানায়, প্রতিটি বিদ্যালয়ে পাঁচটি করে শিক্ষকের পদ রয়েছে। কিন্তু শিক্ষক সংকটে থাকা বিদ্যালয়গুলো উপজেলার বিভিন্ন হাওরপাড়ে অবস্থিত। বিদ্যালয় এলাকায় নাগরিক সুবিধা না থাকায় এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা দুর্গম হওয়ায় শিক্ষকরা সেখানে থাকতে চান না।

উপজেলার ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবু সাঈদ বলেন, ‘উপজেলায় প্রায় ১৬৭ জন শিক্ষকের পদ শূন্য। আমি ডিপিইও স্যারের কাছে আবেদন জানিয়েছি বর্তমানে পদায়নের জন্য প্রস্তুত উত্তীর্ণ সহকারী শিক্ষকদের মাধ্যমে এসব বিদ্যালয়ের শূন্য পদগুলো পূরণের।’ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পঞ্চানন বালা বলেন, ‘আমি শূন্যপদগুলো মাথায় রেখে বিধি মেনে সহকারী শিক্ষক হিসেবে উত্তীর্ণ শিক্ষকদের পদায়ন দিতে চেষ্টা করব।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা