kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মুগারজোর বিদ্যালয়

নাজিরপুরে প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবি বিক্ষোভ

পিরোজপুর প্রতিনিধি   

২৭ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার মুগারজোর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মেহেদী হাসানের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। তাঁর বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠনের চেষ্টা, নিয়োগ বাণিজ্যসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নবনির্বাচিত পাঁচ সদস্য গতকাল শুক্রবার সকালে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ তুলে ধরেন। গত ১৯ আগস্ট নির্বাচনে সর্বোচ্চ ভোটে বিজয়ী অভিভাবক প্রতিনিধি মো. নজরুল ইসলাম অভিযোগ জানান, প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়টিকে নিজের খেয়াল-খুশি মতো চালাচ্ছেন। তিনি বিদ্যালয়ের সদ্য সাবেক সভাপতিকে আবারও সভাপতি করতে উঠেপড়ে লেগেছেন। আর এ জন্য অভিভাবকদের ভোটে সদস্য নির্বাচনের পর তিনবার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা দিয়েও বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে তিনি নির্বাচনের দিন বিদ্যালয়ে উপস্থিত হননি।

এ সময় ম্যানেজিং কমিটির মহিলা সদস্য হারিসুন আক্তার জানান, গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে প্রধান শিক্ষক মেহেদী হাসান তাঁর বাড়িতে গিয়ে সাবেক সভাপতি মো. নান্না মিয়াকে সমর্থনের জন্য কাগজে স্বাক্ষর দিতে বলেন। এতে রাজি না হলে তিনি তাঁর সদস্যপদ বাতিলসহ দেখে নেওয়ার হুমকি দেন।

ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আ. রশিদ আকন অভিযোগ করে জানান, প্রধান শিক্ষক ওই রাতে বিদ্যালয়ের তিন শিক্ষক প্রতিনিধিকে হুমকির মুখে নান্না মিয়ার সমর্থনে স্বাক্ষর নেন। এ ছাড়া তিনি (প্রধান শিক্ষক) প্রকাশ্যে বলে বেড়ান, ১২ লাখ টাকা দিয়ে এখানে এ পদে নিয়োগ নিয়েছেন। এখন এ টাকা তুলতে তাঁকে যা যা করা দরকার, তা করবেন।

তবে ওই বিদ্যালয়ের সদ্য সাবেক সভাপতি মো. নান্না মিয়া দাবি করেন, নিয়োগে কোনো বাণিজ্য হয়নি। অফিস খরচ বাবদ সামান্য কিছু টাকা খরচ নেওয়া হয়েছে মাত্র।

এ ব্যাপারে জানতে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মো. মেহেদী হাসানের মোবাইলে ফোন দিলে তিনি এ প্রতিবেদকের পরিচয় পাওয়ার পর লাইন কেটে দিয়ে তা বন্ধ করে দেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা