kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

সোনারগাঁয় আ. লীগ বিএনপির সংঘর্ষ, আহত ৮০

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১ অক্টোবর, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মেঘনা নদীর বালু মহালের নিয়ন্ত্রণ ও এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে আলাদা সংঘর্ষে কমপক্ষে ৮০ জন টেঁটাবিদ্ধ হয়েছে। এ সময় ৩০টি বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার উপজেলার বারদী ইউনিয়নের মেঘনা নদীর তীরবর্তী নুনেরটেক গ্রামে মেঘনা নদীর বালু মহালের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য এবং আওয়ামী নেতা ওসমান গনি ও একই ওয়ার্ডের বিএনপি সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৬০ জন আহত হয়।

বিজ্ঞাপন

তাদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে পাঁচজনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউতে) রাখা হয়েছে। সংঘর্ষে এক পক্ষ অন্য পক্ষের লোকজনের বাড়িঘর ভাঙচুর ও মালামাল লুট করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ নেতা ওসমান গনি বলেন, 'বারদী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য কামাল হোসেনের মদদে বিএনপি নেতাকর্মীরা পরিকল্পিতভাবে আমাদের নেতাকর্মীদের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট এবং আমাদের কর্মীদের কুপিয়ে আহত করেছে। '

অভিযোগ অস্বীকার করে বিএনপি নেতা দেলোয়ার হোসেন বলেন, 'ক্ষমতার দাপটে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা হামলা করেছে। '

সোনারগাঁ থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, এ ঘটনায় পাল্টাপাল্টি চারটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।



সাতদিনের সেরা