kalerkantho

শনিবার ।  ২৮ মে ২০২২ । ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৬ শাওয়াল ১৪৪

কটিয়াদীতে ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ ইমাম আটক

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে তৃতীয় শ্রেণির এক শিশুশিক্ষার্থী (১০) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে স্থানীয় এক মসজিদের ইমামকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। ওই শিশু আটক ইমামের কাছে আরবি শিখত বলে জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

গুরুতর আহত শিশুটিকে কিশোরগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে মুমুরদিয়া ইউনিয়নের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

শিশুটির পরিবারের সদস্যরা জানান, মুমুরদিয়া বাজার জামে মসজিদের ইমাম মো. জয়নাল মিয়ার (৩৫) কাছে আরবি শিখত শিশুটি। গতকাল সকালে অন্য শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়ে তাকে কৌশলে মসজিদে আটকে রাখে ওই ইমাম। পরে মসজিদের দরজা-জানালা বন্ধ করে তাঁর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে জয়নাল। শিশুটির মুখ রুমাল দিয়ে বেঁধে সে তার ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়। এতে গুরুতর আহত হয় শিশুটি। পরে বাড়িতে এসে মায়ের কাছে শিশুটি ঘটনাটি খুলে বলে।

এদিকে ঘটনাটি জানাজানি হলে এলাকাবাসী জয়নাল মিয়াকে ধরে গণধোলাই দিয়ে আটকে রাখে। পরে পুলিশ তাকে আটক করে

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিশুটি জানায়, এ ঘটনা কাউকে জানালে তাকে মেরে ফেলা হবে বলেও হুমকি দেয় ওই ইমাম। এরপর ঘণ্টাখানেক মসজিদের একটি কক্ষে তাকে বসিয়ে রাখা হয়। পরে এ ঘটনা কাউকে জানাবে না বলে শিশুটি নিশ্চয়তা দিলে কিছু জাম দিয়ে তাকে ছেড়ে দেয় জয়নাল।

 

 

 



সাতদিনের সেরা