kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চকরিয়ায় \'মধুভাত\' খেয়ে পরিবারের ১৪ জন বেহুঁশ

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

১১ নভেম্বর, ২০১৩ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কক্সবাজারের চকরিয়ায় শীতকালীন শখের 'মধুভাত' খেয়ে একই পরিবারের শিশু, মহিলাসহ ১৪ জন বেহুঁশ হয়ে পড়ে বলে জানা গেছে। পরে তাদের মারাত্মক অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উপকূলীয় ইউনিয়ন বদরখালীতে গতকাল রবিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, চট্টগ্রামে শীতের সময় পিঠাসহ নানা ধরনের মৌসুমি খাবারের প্রচলন রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এর মধ্যে স্বাদে-গন্ধে মধুভাত একটি অনন্য খাবার। ধান ভিজিয়ে চারা গজানোর পর চাল (জালা চাল) ও বিন্নি চালের ভাতের সঙ্গে নারিকেল, দইসহ বিভিন্ন উপাদান মিশিয়ে ১২ থেকে ১৬ ঘণ্টা পচানোর পর সুস্বাদু ঘ্রাণ বের হলেই এ শখের মধুভাত খাওয়া হয়। স্থানীয় লোকজন জানায়, গতকাল সকালে বদরখালীর ৩ নম্বর ব্লকের হাফেজ ফরিদ আহমদের পরিবারের সদস্যরা শখের ওই মধুভাত খাওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই একে একে সংজ্ঞা হারায়। এ সময় পার্শ্ববর্তী লোকজন তাদের উদ্ধার করে দ্রুত চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রশিদ-উন-নবী কালের কণ্ঠকে বলেন, অতিরিক্ত সময় মধুভাত পচানোর ফলে তা বিষাক্ত দ্রব্যে পরিণত হয়। ফলে যে কেউ সেটি খেলেই সমস্যায় পড়তে পারে। ওই পরিবারের সদস্যদের বেলায় তা-ই ঘটেছে। ওই মধুভাত খাওয়ার ফলে তাদের শরীরে বিষক্রিয়া দেখা দেয়।

 

 



সাতদিনের সেরা