kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

ভুল সবই ভুল

ডারউইন নাস্তিক ছিলেন

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে সেগুলো মিথ্যা। লিখেছেন আসমা নুসরাত

২ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডারউইন নাস্তিক ছিলেন

জন ভ্যান উইহেকে একজন ডারউইন বিশেষজ্ঞ। তিনি ডারউইন অনলাইনেরও প্রতিষ্ঠাতা। ডারউইনকে নাস্তিক বলার বিষয়টি তিনি মানতে নারাজ। এ নিয়ে দীর্ঘ নিবন্ধ লিখেছেন। ডারউইনের চিঠিপত্র ও আত্মজীবনী থেকে উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন, ডারউইন আর যা-ই ছিলেন, নাস্তিক ছিলেন না। ৭ মে ১৮৯৭ সালে জন ফরডাইসকে লেখা চিঠিতে ডারউইন বলছেন, ‘আমি কোনো স্থির সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারছি না। আমার চিন্তা বদলাচ্ছে বারবারই। তবে এটুকু নিশ্চিত জানুন, আমি নাস্তিক ছিলাম না কোনোকালে, অন্তত স্রষ্টার অস্তিত্ব আছে কি না এ প্রশ্নে। আমাকে বরং অজ্ঞেয়বাদী বলতে পারেন।’

যে বিষয়ে তথ্যের অভাব সে বিষয়ে পরিষ্কার অবস্থান নিতেন না ডারউইন। স্রষ্টার অস্তিত্ব যেমন প্রমাণ করা সম্ভব না, আবার তাঁকে অস্বীকার করাও সহজ নয়।

উইহেকে যেমন বলছেন, ডারউইন আসলে পুরনো চিন্তায় নতুন মাত্রা যোগ করেছেন। প্রকৃতির নিয়মকে নতুনভাবে ব্যাখ্যা করেছেন। আর এটা কখনোই স্রষ্টাকে অস্বীকার নয়। যেমন—বিগল ডায়েরিতে তিনি এক জায়গায় লিখছেন, এখানকার প্রাণীগুলো পৃথিবীর অন্য জায়গাগুলো থেকে আলাদা। মনে হয় এখানে প্রকৃতির বিকাশ অন্যভাবে ঘটেছে। এমন কথাকে আপনি নাস্তিকতা ধরলে আমাদের খুব বেশি কিছু করার নেই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা