kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভাইয়ের হাতে দুই ভাই খুন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভাইয়ের হাতে দুই ভাই খুন

দেশের দুই জেলায় দুজনের খুনের খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে নরসিংদীর রায়পুরায় বড় ভাইয়ের শাবলের আঘাতে ছোট ভাই এবং পাবনায় জমির বিরোধে চাচাতো ভাইয়ের দায়ের কোপে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদে বিস্তারিত—

পাবনা : জমি নিয়ে বিরোধের জেরে পাবনা সদর উপজেলার ভাঁড়ারায় চাচাতো ভাইয়ের দায়ের কোপে খুন হয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতা ও ব্যবসায়ী শরিফুল ইসলাম (৩০)। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ভাঁড়ারা গ্রামের শাহী মসজিদের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

নিহত শরিফুল ওই গ্রামের আব্দুস সামাদ সরদারের ছেলে। তিনি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ভাড়ারা ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। পেশায় তিনি ছিলেন প্রসাধনসামগ্রী ব্যবসায়ী।

অভিযুক্ত চাচাতো ভাই শাহীন হোসেন ও স্বপন হোসেন একই গ্রামের মৃত মজনু সরদারের ছেলে।

পাবনা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রোকনুজ্জামান সরকার জানান, শুক্রবার সকালে বিরোধপূর্ণ জমির বাঁশ কাটতে যান শরিফুলের বাবা সামাদ সরদার। এ সময় স্বপন ও শাহীন তাঁকে বাধা দিলে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাঁরা শরিফুলকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান।

খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে।

রায়পুরা (নরসিংদী) : রায়পুরায় পারিবারিক বিরোধ মেটাতে গিয়ে ছোট ভাইকে শাবলের আঘাতে হত্যা করলেন বড় ভাই। গতকাল শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার উত্তর বাখরনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম মো. শহীদ মিয়া (৪২)। তিনি ওই এলাকার মৃত আব্দুল মান্নান মিয়ার ছেলে। পুলিশ ঘটনায় জড়িত বড় ভাই ইদ্রিস মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, দুপুরে স্ত্রীর সঙ্গে শহীদ মিয়ার ঝগড়া হয়। এ সময় স্ত্রী ও এক সন্তানকে মারধর করেন তিনি। পরে তাঁদের ঝগড়া মেটাতে এগিয়ে যান বড় ভাই ইদ্রিস মিয়া। কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে দৌড়ে গিয়ে ঘর থেকে একটি শাবল এনে শহীদের বুকে আঘাত করেন ইদ্রিস।

 

 

 



সাতদিনের সেরা