kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আবেদন ফি বাড়ল সরকারি চাকরির

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আবেদন ফি বাড়ল সরকারি চাকরির

সরকারি সব চাকরির (ক্যাডার পদ বাদে) আবেদন ফি পুনরায় নির্ধারণ করেছে সরকার। এতে নবম, ১৩ ও ১৬তম গ্রেডে চাকরির আবেদন ফি বাড়ানো হয়েছে। আর ১১ ও ১২তম গ্রেডের ক্ষেত্রে নতুন ফি ধরা হয়েছে। বৃহস্পতিবার অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এসংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, নবম গ্রেড বা এর বেশি গ্রেডভুক্ত (নন-ক্যাডার) পদে আবেদন ফি ৬০০ টাকা করা হয়েছে। এ গ্রেডে চাকরির আবেদন ফি আগে ৫০০ টাকা ছিল। তবে দশম গ্রেডের আবেদন ফিতে পরিবর্তন আনা হয়নি। আগের মতো ৫০০ টাকা রাখা হয়েছে।

১১ ও ১২তম গ্রেডে চাকরিপ্রত্যাশীদের আবেদন ফি নতুন করে ধরা হয়েছে। এতে আবেদন ফি ধরা হয়েছে ৩০০ টাকা। আগে এই গ্রেড দুটির চাকরির আবেদন ফি নির্ধারণ করা ছিল না।

১৩ থেকে ১৬তম গ্রেডে চাকরির আবেদন ফি বাড়িয়ে দ্বিগুণ করা হয়েছে। আগে ছিল ১০০ টাকা, সেটি এখন ২০০ টাকা করা হয়েছে। ১৭ থেকে ২০তম গ্রেডের ক্ষেত্রে ফি ৫০ টাকা বাড়িয়ে ১০০ টাকা করা হয়েছে।

সরকার হঠাৎ কেন চাকরির আবেদন ফি পুনর্নির্ধারণ করে দিয়েছে জানতে চাইলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা নাম না প্রকাশের অনুরোধ জানিয়ে কালের কণ্ঠকে বলেন, সব গ্রেডে চাকরির ফি নির্ধারিত না থাকায় অনেক সময় চাকরিপ্রত্যাশীদের বেশি অর্থ গুনতে হতো। ফি নির্ধারণ করে দেওয়ায় এখন আর তা হবে না।

প্রজ্ঞাপনে সরকারি চাকরির আবেদন ফির ক্ষেত্রে বেশ কিছু শর্ত দেওয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন ও পরীক্ষার ফি গ্রহণ করা যাবে। পরীক্ষার ফি বাবদ সংগৃহীত অর্থের সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ কমিশন হিসেবে টেলিটককে দেওয়া যাবে।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়েছে, অনলাইন আবেদন গ্রহণ না করা হলে পরীক্ষার ফি বাবদ অর্থ চালানের মাধ্যমে গ্রহণ করতে হবে। তবে স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানগুলো প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে ব্যাংক ড্রাফট/পে-অর্ডারের মাধ্যমে এ অর্থ নিতে পারবে। পরীক্ষার ফি বাবদ আদায় করা অর্থ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের ‘১৩ ডিজিট প্রাতিষ্ঠানিক কোড’ এবং ‘০৭ ডিজিট নতুন অর্থনৈতিক কোড ১৪২২৩২৬’-এ অটোমেটেড চালানে সরকারি কোষাগারে জমা করতে হবে।

 



সাতদিনের সেরা