kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়ন

তদন্তে র‌্যাব-পুলিশের একাধিক দল মাঠে

নারী ফুটবলারদের ডলার চুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাফ ফুটবলে শিরোপা জিতে বাংলাদেশের মানুষকে আনন্দে ভাসিয়েছেন নারী ফুটবলাররা। তাঁদের দেশে ফেরা উপলক্ষে জমকালো উৎসবের আয়োজন করা হয়। কিন্তু কিছু অব্যবস্থার কারণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা শুরু হয়। এর মধ্যেই নারী ফুটবলারদের লাগেজ থেকে টাকা ও ডলার চুরি হয়।

বিজ্ঞাপন

তবে এসব ছাপিয়ে সবখানে নারী ফুটবলারদের সাফল্য উদযাপন করছে দেশের সাধারণ মানুষ। নিজ নিজ এলাকার কৃতী নারীদের বীরের সংবর্ধনা দিতে মুখিয়ে প্রশাসনসহ সর্বস্তরের মানুষ

 

 

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের লাগেজ থেকে টাকা ও ডলার চুরির ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মো. কামরুল ইসলাম।

তাঁর দাবি, ফুটবলাররা অক্ষত ও তালাবদ্ধ অবস্থায় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে লাগেজ বুঝে পেয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এ কথা বললেও সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের ব্যাগ থেকে ডলার চুরির ঘটনা তদন্তে নেমেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর একাধিক দল। তাদের মধ্যে রয়েছে বিমানবন্দরে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা গোয়েন্দা সংস্থা, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন), ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা ও অপরাধ তদন্ত বিভাগ—ডিবিসহ পুলিশের একাধিক ইউনিট ও র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। ঘটনার পর থেকে চোর ধরতে মাঠে নেমেছে তারা।

গত বুধবার বাফুফে ভবনে যাওয়ার পর রাতে জানা যায়, বিমানবন্দরে ফুটবলারদের লাগেজ থেকে ডলার ও টাকা চুরি হয়েছে। শামসুন্নাহারের ৪০০ ডলার, কৃষ্ণা রানী সরকারের ৪০০ ডলার ও ৫০ হাজার টাকা, মার্জিয়ার কিছু নেপালি রুপি ও অন্যদের সাবান চুরি হয়েছে। এ ছাড়া দলের অন্যান্য সদস্যের লাগেজও ভাঙা অবস্থায় পাওয়া গেছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. মোর্শেদ আলম বলেন, ‘চুরির ঘটনায় এখন পর্যন্ত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। বিমানবন্দর এলাকার একাধিক সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি গুরুত্ব সহকারে বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। ’

বিমানবন্দরে এপিবিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জিয়াউল হক বলেন, ‘সংবাদ পাওয়ার পর স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তদন্ত করছি। ’

 

 

 



সাতদিনের সেরা