kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলার আসামি যুবলীগের কমিটিতে

কুমিল্লা দক্ষিণ

আবদুর রহমান, কুমিল্লা   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১০ বছরের বেশি সময় পর গত শনিবার ৪১ সদস্যের কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় যুবলীগ। কমিটিতে একজনকে আহ্বায়ক, দুজনকে যুগ্ম আহ্বায়ক এবং ৩৮ জনকে সদস্য করা হয়েছে।

এই কমিটিতে কুমিল্লার আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা এম সাইফুল ইসলাম হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি আবদুস ছোবহান খন্দকার সেলিমকে যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে বলে অভিযোগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের। সাইফুল হত্যা মামলার ৯ নম্বর এজাহারভুক্ত আসামি সেলিম।

বিজ্ঞাপন

কুমিল্লা শহর ছাত্রলীগের সভাপতির পদে থাকা অবস্থায় ২০১৫ সালে সাইফুল খুন হন। আর সেলিম ছিলেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

সেলিমকে যুবলীগের কমিটিতে রাখা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে সাইফুলের ছোট ভাই কুমিল্লা মহানগর যুবলীগ নেতা এম কামরুল হাসান নান্নু বলেন, ‘ভাবতে অবাক লাগে আমার ভাইয়ের খুনিরা আজ বড় বড় পদ পেয়ে পুরস্কৃত হয়। এর চেয়ে বেদনার কী হতে পারে?’

নতুন কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে কুমিল্লা সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক সহসভাপতি (ভিপি) মো. কামরুল হাসান শাহীনকে। প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে লাকসাম পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক মো. আবুল খায়েরকে। দ্বিতীয় যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুস ছোবহান খন্দকার সেলিম।

মামলা প্রসঙ্গে যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুস ছোবহান খন্দকার সেলিম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ওই মামলাটি একটি পলিটিক্যাল (রাজনৈতিক) মামলা। সেটাকে নিয়ে এখন আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। এ নিয়ে ষড়যন্ত্র করে তারা কিছু করতে পারবে না। ’

কমিটির আহ্বায়ক কামরুল হাসান শাহীনও বলেন, ‘ওই মামলাটি ছিল রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক। সেখানে আবদুস ছোবহান খন্দকার সেলিমের মতো অনেক নেতাকর্মীকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে আসামি করা হয়েছে। সেলিম ওই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। তাঁর বিরুদ্ধে এখন মিথ্যা মামলার বিষয় নিয়ে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ’

কমিটির বিষয়ে জানতে গতকাল বিকেলে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিলের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ধরেননি। পরে সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান চপলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি খাবার খাচ্ছি, একটু পরে কথা বলব। ’ পরে বেশ কয়েকবার কল করা হলেও তিনি ধরেননি।

 



সাতদিনের সেরা