kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পোশাকের বৈচিত্র্যকে স্বাগত জানিয়ে কর্মসূচি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পোশাকের বৈচিত্র্যকে স্বাগত জানিয়ে কর্মসূচি

পোশাকের বৈচিত্র্যকে স্বাগত জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থীর অবস্থান কর্মসূচি। গতকাল বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে। ছবি : কালের কণ্ঠ

পোশাকের বৈচিত্র্যকে স্বাগত জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে ‘যেমন খুশি তেমন পরো’ শিরোনামে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

‘বৈচিত্র্যই সাধারণ, বৈচিত্র্যই বাংলাদেশ’, ‘বস্তু পোশাককে ক্ষমতা দিল কে?’, ‘আমি বলি না নিপাত যাক, বলি সব থাক’ ইত্যাদি লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে শিক্ষার্থীরা এই অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

অবস্থান কর্মসূচিতে তাঁরা বলেন, ‘মূল্যবোধ এবং সংস্কৃতি সব সময় পরিবর্তনশীল।

বিজ্ঞাপন

আজ থেকে ১০১ বছর আগে যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যাত্রা শুরু করেছিল, তখন সেখানে নারী শিক্ষার্থী ছিলেন একজন। এখন এই বিশ্ববিদ্যালয়ে নারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা আলাদা করে গুনতে হয় না। উচ্চশিক্ষায় নারীদের অংশগ্রহণ না করার যে দেশীয় মূল্যবোধ এবং সংস্কৃতি আগে ছিল, তার পরিবর্তন হয়েছে। আমরা এই পরিবর্তনকে স্বাগত জানাই। অন্যের স্বাধীনতার ওপর খবরদারি না করে, নিজের স্বাধীনতা চর্চার মাধ্যমে সমাজে যে পরিবর্তন আসে, তার পক্ষে আমাদের অবস্থান। ’

আইন বিভাগের শিক্ষার্থী তাসনিম হালিম মীম বলেন, ‘দেশীয় মূল্যবোধ সময়ের সঙ্গে পরিবর্তন হবে এটা স্বাভাবিক। আমাদের সংস্কৃতি পরিবর্তনশীল। এটার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া এবং অন্যের অধিকারে হস্তক্ষেপ না করে নিজের অধিকার চর্চা করা, এটিই চাই আমরা। ’

রাজধানীর একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গত ১৮ মে নরসিংদী রেলস্টেশনে পোশাকের কারণে গালিগালাজ ও মারধরের শিকার হন। এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর ব্যাপক সমালোচনা হলে নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ভৈরব রেলওয়ে থানায় মামলা করে। তরুণীকে হেনস্তা ও মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত মার্জিয়া আক্তার ওরফে শিলাকে পুলিশ গত ৩০ মে গ্রেপ্তার করে। গত মঙ্গলবার শিলার জামিন আবেদনের শুনানিতে উচ্চ আদালত এ বিষয়ে কথা বলেন। তা নিয়ে গত ২৫ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী ব্যানারে কিছু শিক্ষার্থী অভিবাদন ও সাধুবাদ জানিয়ে মানববন্ধন করেন। এরপর নর্থ সাউথ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে হাইকোর্টের মন্তব্যকে সাধুবাদ জানিয়ে মানববন্ধন করা হয়।



সাতদিনের সেরা