kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

উপকূলে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে যুক্তরাষ্ট্রকে উৎসাহ উপদেষ্টার

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২০ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে তেল ও গ্যাস অনুসন্ধান এবং পারমাণবিক শক্তি মডুলার চুল্লির সম্ভাবনা দেখতে মার্কিন কম্পানিগুলোকে ‘উৎসাহ দিয়েছেন’ প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী।

গতকাল শুক্রবার ভোরে মার্কিন আন্ডার সেক্রেটারি অব স্টেট ফর ইকোনমিক গ্রোথ, এনার্জি অ্যান্ড দ্য এনভায়রনমেন্ট জোসে ডাব্লিউ ফার্নান্দেজের সঙ্গে বৈঠকের পর বাংলাদেশ দূতাবাস এ তথ্য জানায়।

ওয়াশিংটন ডিসিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে তাদের ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ফাইন্যান্স করপোরেশনের (ডিএফসি) মাধ্যমে বাংলাদেশের নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতে আরো বিনিয়োগের আহ্বান জানান।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, শ্রম অধিকার, কাজের পরিবেশসহ বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের ডিএফসি থেকে কোনো সহযোগিতা পাচ্ছে না।

বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, আন্ডার সেক্রেটারি নতুন নতুন সুযোগ ও সহযোগিতার ক্ষেত্র উন্মুক্ত করার জন্য শ্রম অধিকার এবং কারখানার নিরাপত্তা পরিস্থিতি আরো উন্নত করতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আরো ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে বাংলাদেশকে উৎসাহিত করেন। তিনি ‘ক্লিন এনার্জিকে’ একটি সম্ভাবনাময় খাত হিসেবে অভিহিত করেন এবং বাংলাদেশ এ ধরনের সম্ভাবনা উন্মোচন করতে পারে বলে অভিমত জানান। আন্ডার সেক্রেটারি ফার্নান্দেজ ২০২১ সালের নভেম্বরে কপ-২৬-এ চালু হওয়া ‘বৈশ্বিক মিথেন অঙ্গীকারে’ যোগ দিতে বাংলাদেশকে আহ্বান জানান।

দূতাবাস জানায়, প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী ও যুক্তরাষ্ট্রের আন্ডার সেক্রেটারি ফার্নান্দেজ বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় জ্বালানি সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করেন। তাঁরা এ সহযোগিতাকে আরো শক্তিশালী করারও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। জ্বালানি উপদেষ্টা বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতকে স্বনির্ভর করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের নেওয়া নীতির বিষয়ে আন্ডার সেক্রেটারিকে অবহিত করেন।



সাতদিনের সেরা